ব্রেকিং:
খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ’র চাঁদাবাজ ও সশস্ত্র সন্ত্রাসী একশন বাবু আটক খাগড়াছড়িতে নিরাপত্তা বাহিনী ও ইউপিডিএফ’র গুলিবিনিময়; গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক ইউপিডিএফ সন্ত্রাসী আটক, সর্টগান ও ২১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার
  • সোমবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১২ ১৪২৬

  • || ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
‘বর্তমান সরকার উন্নয়ন ও শিক্ষা বান্ধব’ বান্দরবানে দুর্বৃত্তের গুলিতে আওয়ামী লীগ নেতা নিহত, আতঙ্কিত হয়ে একজনের মৃত্যু, গুলিবিদ্ধ আরো ৫ খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা উল্টে নিহত ১ পাহাড়ে যোগাযোগের নবদিগন্ত নানিয়ারচরের ‘চেঙ্গী সেতু’ বারি পেঁয়াজ-৫ চাষের মাধ্যমে পাহাড়ে অর্থনৈতিক অর্জন সম্ভব রাঙামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন মরণব্যাধি ক্যানসারের কাছে হেরে গেলেন সাজেকের সাধন চাকমা
৩৬৩

অসহ্যকর গুঁড়া কৃমি? চিরতরে পরিত্রাণ দেবে ভৃঙ্গরাজ

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত


আদিকাল থেকেই শারীরিক নানা রোগ সারাতে ভেষজ পদ্ধতি কাজে লাগিয়ে আসছে মানুষ। উপকারী এসব ভেষজ সহজেই অনেক কঠিন রোগ থেকেই পরিত্রাণ দিয়েছে। তেমনই একটি ভেষজ হচ্ছে ভৃঙ্গরাজ। যা অনেকেরই পরিচিত একটি উদ্ভিত।

ভৃঙ্গরাজ একটি ছোট গুল্ম জাতীয় উদ্ভিদ। এটির ফুল হলুদ হয়। ভৃঙ্গরাজের আরো তিনটি প্রজাতি রয়েছে। একটির ফুল নীল, একটির সাদা এবং অন্যটির হলুদ। এর ডাঁটা একটু লালচে ৩.৪ সে.মি থেকে ৯.৫ সে.মি পর্যন্ত লম্বা হয়। ডাঁটা রসালো, নরম, সূক্ষ্ম লোমশ ও দ্রুত বাড়ে। বর্ষাকালে হলুদ রঙের ফুল হয় এবং শরৎকালে ফল হয়। এর ডাঁটার গিরা থেকে পাতা বের হয়। পাতা ৪- ৮ সে.মি লম্বা এবং ১.২-২.০ সে.মি. পর্যন্ত চওড়া হয়। পাতার কিনার হালকা খাঁজকাটা। ডাঁটার প্রতি গেরা থেকে দুটি করে পাতা বিপরীতমূখী হয়ে গজায়। পাতার আকৃতি লম্বাটে বর্শাকৃতি অমসৃণ ও খসকসে।

এর রয়েছে অনেক ওষুধি গুণ। মাথার যন্ত্রণা থেকে শুরু করে অসহ্যকর গুঁড়া কৃমির হাত থেকে চিরতরে রেহাই মিলে ছোট এই উদ্ভিতের ফলে। এর পাতা, ডাঁটা ও ফুল সব কিছুই বেশ কাজের। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক এর উপকারিতা সম্পর্কে-  

> সকালে ঘুম থেকে উঠার পর অনেকেরই মাথায় যন্ত্রণা হয় বা আধকপালে ব্যথা হয়। যা সাইনোসাইটিসের জন্য হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে ভৃঙ্গরাজের পাতা শুকিয়ে গুঁড়া করে নস্যি নিলে বা পাতার রস মাথায় দিলে উপশম হয়।

> মাথার চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যায় ভুগছেন? এই পাতার রস দুপুরে মাথায় লাগালে অথবা রস তেলের মতো ব্যবহার করলে চুল পড়া রোধ হয়।

> মহিলারা শ্বেত প্রদরের শিকার হলে প্রায়ই মাথার চুল উঠে যায়। সেক্ষেত্রে ভৃঙ্গরাজের পাতা সেদ্ধ করে সেই পানি দিয়ে দিনে দুইবার মাথা ধুয়ে নিন।  ৩ থেকে ৪ দিনের মধ্যেই ফল পেয়ে যাবেন।

> চোখ উঠেছে? চোখে পুঁজ জমছে? ২০ থেকে ২৫ ফোঁটা ভৃঙ্গরাজের রস পানিতে মিশিয়ে এ পানি দিয়ে চোখ ধুলে নিন। চোখ উঠা সেরে যাবে।

> পায়োরিয়া হলে ভৃঙ্গরাজের পাতা গুঁড়া করে মাজনের মতো ২ থেকে ৪ মিনিট ব্যবহার করুন। পায়োরিয়া সেরে যাবে। এছাড়াও এতে মাড়ি শক্ত হয়। আবার মাড়িতে কোনো ঘা থাকলে এই পাতার ক্বাথ দিয়ে কয়েকদিন মুখ ধুলে সেরে যায়।

> গুঁড়া কৃমির যন্ত্রণায় ভুগছেন? এর পাতার রস পূর্ণবয়স্করা এক চা চামচ ৮ কাপ পানিতে মিশিয়ে খেলে পরিত্রাণ পাবেন।

> আমাশয়ে ভুগে থাকলে ২৫ থেকে ৩০ ফোঁটা ভৃঙ্গরাজ পাতার রস প্রতিদিন আধা কাপ ছাগলের দুধের সঙ্গে মিশিয়ে পান করুন। উপকার মিলবে যখন তখন।

> ভৃঙ্গরাজের পাতার রস মাথায় মাখলে উকুনের হাত থেকে রেহাই পাওয়া যায়।

> রক্তে শ্বেত কণিকা বেড়ে গেলে ২৫ থেকে ৩০ ফোঁটা এই পাতার রস দুধের সঙ্গে মিশিয়ে পান করুন। রক্ত স্বাভাবিক হয়ে আসবে।

> দাঁতের যত্নে ভৃঙ্গরাজ রসের প্রলেপ দিলে বেশ উপকার হয়।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর