আলোকিত রাঙামাটি
  • বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭

  • || ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

সর্বশেষ:
রাঙামাটির উপজেলা ভিত্তিক করোনা আপডেটঃ- রাঙামাটি সদর- আক্রান্ত ৪৭২, কাপ্তাই- আক্রান্ত ১০৩, কাউখালী- আক্রান্ত ৩০, বাঘাইছড়ি- আক্রান্ত ১৬, বরকল- আক্রান্ত ০৫, লংগদু- আক্রান্ত ১৮, রাজস্থলী- আক্রান্ত ১১, বিলাইছড়ি- আক্রান্ত ১৩, জুরাছড়ি- আক্রান্ত ২৩, নানিয়ারচর- আক্রান্ত ০৯। মোট আক্রান্ত- ৭০০, মোট সুস্থ- ৫৯০, মোট মৃত্যু- ১০ জন।
১০৩

আরো ৫১টি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইন স্থাপন করবে সরকার

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ১১ জুলাই ২০২০  

প্রতীকী ছবি।


করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসায় আরো ৫১টি সরকারি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইন স্থাপন করবে সরকার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনা রোগীদের জীবন বাঁচাতে কার্যকরি ভূমিকা রাখতে পারে সরকারের এই উদ্যোগ। এতে করোনা আক্রান্ত অনেক রোগীর প্রাণ বেঁচে যাবে বলেও মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

গত মাসের শুরুর দিকে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের প্রকাশিত একটি নথিতে সরকারি হাসপাতালগুলোতে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইনের সরবরাহ নিয়ে ভয়াবহ চিত্র তুলে ধরা হয়। জুনের ২ তারিখে ন্যাশনাল ইলেক্ট্রো-মেডিক্যাল ইক্যুইপমেন্ট মেইনটেনেন্স ওয়ার্কশপ এন্ড ট্রেইনিং সেন্টারে পাঠানো এক চিঠিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় পক্ষ থেকে বলা হয়, করোনা চিকিৎসার জন্য নির্ধারিত ৩৯টি সরকারি হাসপাতালের বেশিরভাগেই অক্সিজেনের নিরবিচ্ছন্ন সরবরাহ পাচ্ছে না। গণপূর্ত মন্ত্রণালয় দ্বারা তৈরি ওই সব হাসপাতাল গ্যাসের পাইপ লাইন থাকলেও কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইনের সরবরাহ না পাওয়ায় সিলিন্ডারের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। এই সমস্যা সমাধানে দ্রুত ওই হাসপাতালগুলোতে লিকুইড (তরল) অক্সিজেনের সরবরাহ নিশ্চিত করার নির্দেশ দেন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। পাশাপাশি জরুরি ভিত্তিতে ওই হাসপাতালগুলোতে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইন চালুরও নির্দেশ দেয়া হয়।

কর্মকর্তারা জানান , বর্তমানে দেশের ২৩ টি সরকারি হাসপাতালে লিকুইড (তরল) অক্সিজেন ট্যাঙ্ক বসানোর কাজ হচ্ছে। এছাড়াও গত সপ্তাহে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগকে আরো ২১টি সরকারি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইন স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছে। এছাড়া বিশ্ব ব্যাংকের সহায়তায় আরো ৩০টি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইন স্থাপন করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

গত মার্চে বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস হানা দেয়ার আগে ২২টি সরকারি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইনের ব্যবস্থা ছিল। করোনার প্রকোপ দেখা দেয়ার পর আরো পাঁচটি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইন স্থাপন করা হয়। আশা করা হচ্ছে ,সম্পূর্ণ কাজ সমাপ্তি হলে বাংলাদেশের ১০১টি সরকারি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় অক্সিজেন লাইনের ব্যবস্থা থাকবে।

তথ্যসূত্র: ইত্তেফাক

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর