আলোকিত রাঙামাটি
  • মঙ্গলবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৮ ১৪২৭

  • || ০৪ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
রাঙামাটির উপজেলা ভিত্তিক করোনা আপডেটঃ- রাঙামাটি সদর- আক্রান্ত ৬১৯, কাপ্তাই- আক্রান্ত ১১৬, কাউখালী- আক্রান্ত ৩১, বাঘাইছড়ি- আক্রান্ত ২৫, বরকল- আক্রান্ত ০৫, লংগদু- আক্রান্ত ২৫, রাজস্থলী- আক্রান্ত ১১, বিলাইছড়ি- আক্রান্ত ১৩, জুরাছড়ি- আক্রান্ত ২৩, নানিয়ারচর- আক্রান্ত ১০। মোট আক্রান্ত- ৮৮৫, মোট সুস্থ- ৮২৫, মোট মৃত্যু- ১২ জন।
১৪৮

করোনাকালেও জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৫.২৪ শতাংশ

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ১১ আগস্ট ২০২০  


করোনা মহামারির মধ্যেও গত অর্থবছরে বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ। স্থিরমূল্যে এই জিডিপির আকার দাঁড়িয়েছে ২৭ লাখ ৯৬ হাজার ৩৭৮ কোটি টাকা। এছাড়া মাথাপিছু আয় ২ হাজার ৬৪ ডলারে উন্নীত হয়েছে।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) প্রাক্কলিত হিসাবে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

করোনার কারণে পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি অনেক কম হবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছিল বিশ্ব ব্যাংক-আইএমএফ। গত ৮ জুন প্রকাশিত বিশ্ব ব্যাংকের বিশ্ব ব্যাংকের গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টাস ২০২০ প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ১ দশমিক ৬ শতাংশে নেমে আসতে পারে। তবে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) করোনার পরিস্থিতির সামলে ঘুরে দাঁড়ানোর উপর ভিত্তি করে ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৭ দশমিক ৮ শতাংশ হতে পারে বলে আভাস দিয়েছিল।

দেশের গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগও (সিপিডি) বলেছিল, ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ২ দশমিক ৫ শতাংশের বেশি হবে না। সরকারও লক্ষ্যমাত্রা ৮ দশমিক ২ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ দশমিক ২ শতাংশ পুনঃনির্ধারণ করেছিল

বিবিএসের তথ্যে দেখা যায়, গত অর্থবছরের প্রাথমিক হিসাবে স্থিরমূল্যে ২৭ লাখ ৯৬ হাজার ৩৭৮ কোটি টাকা। জিডিপির মধ্যে মধ্যে সেবা খাত থেকে এসেছে ৫৫ দশমিক ৮৬ শতাংশ। শিল্পখাত থেকে এসেছে ৩১ দশমিক ১৩ শতাংশ। আর কৃষি খাত থেকে এসেছে ১৩ শতাংশ।

উল্লেখ্য, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ৭ দশমিক ৮৬, ২০১৬-২০১৭ অর্থবছরে ৭ দশমিক ২৮ এবং ২০১৮-১৯ অর্থবছরে বাংলাদেশে ৮ দশমিক ১৫ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়, যা ছিল বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ প্রবৃদ্ধি।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর