• বুধবার   ০৩ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছে না, সংক্রমণের আশঙ্কা রাজস্থলীতে রাঙামাটিতে শতভাগ মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতসহ সামাজিক দূরত্ব ও বাজার মনিটরিংয়ে মাঠে নেমেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন নানিয়ারচরে অসহায় ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে ত্রাণের চাল বিতরণ কাউখালীতে জনপ্রতিনিধিদের মাঝে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম বিতরণ রাঙামাটিতে এনজিও গুলোর ঋণ আদায় কার্যক্রম শুরু, বিপাকে ঋণ গ্রহীতরা
২১১

করোনার অন্যতম উপসর্গ ডায়রিয়া

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ৩ মে ২০২০  

প্রতীকী ছবি


শুধু জ্বর, শুকনো কাশি আর শ্বাসকষ্টই করোনাভাইরাসের উপসর্গ নয়। পেট ব্যথা ও ডায়রিয়াও হতে পারে করোনার অন্যতম উপসর্গ। যুক্তরাজ্য ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এতে বলা হয়, যুক্তরাজ্যের আশেপাশের হাসপাতালগুলোতে অনেক কোভিড-১৯ রোগীর মধ্যে একটি নতুন লক্ষণ উপস্থিত হতে শুরু করেছে। সেটা হলো পেটের ব্যথা। তাই পেটের ব্যথা কোভিড -১৯ এর লক্ষণ হতে পারে।

যুক্তরাজ্যের লেখক ও ইতিহাসবিদ ডা. ফার্ন রিডেল কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে মাসখানেক শয্যাশায়ী ছিলেন তিনি। প্রথম দিকে তার ছিল কেবল লুজ মোশন, গা বমি আর পেটব্যথা।

উহানের ইউনিয়ন হাসপাতাল ও টাঙ্গি মেডিকেল কলেজের বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, অনেক সময়ই করোনা সংক্রমণের রেশ এসে পড়ে পেটে।

তারা বলছেন, এটা হলে ডায়রিয়া, পেট ব্যথা ও বমির ক্লান্তি, গা-হাত-পা ব্যথার মতো উপসর্গ দেখা দেয়। এসব রোগীর রোগ নির্ণয় হতে হতে বেশ খানিকটা সময় পার হয়ে যায়। কারণ অনেকে বুঝতেই পারে না তিনি আক্রান্ত। তবে গ্যাস্ট্রো করোনার সুবিধা হলো; এক্ষেত্রে সংক্রমণের প্রকোপ কম থাকে। তবে ভোগান্তির সময়কাল থাকে অনেক বেশি।

নিউইয়র্কের লেনক্স হিল হাসপাতালের এমার্জেন্সি মেডিসিনের চিকিৎসক রবার্ট গ্ল্যাটার জানিয়েছেন, অনেকের ক্ষেত্রে পেটের গোলমাল দিয়ে রোগের সূত্রপাত হলেও পরে একে একে আসে অন্য উপসর্গ। কিছু ক্ষেত্রে অবশ্য এটাই থেকে যায় মূল উপসর্গ হিসেবে।

নিউইয়র্কের একদল গবেষক ২০৬ জন কোভিড-১৯ রোগীর ওপর সমীক্ষা করে দেখেছেন, তাদের মধ্যে ৪৮ জনের শুধু ডায়রিয়ার মতো পাকস্থলীর সমস্যায় ভুগছিলেন। এছাড়া ৬৯ জনের পেটের সমস্যা দিয়ে শুরু হলেও পরে কাশি, শ্বাসকষ্ট ও জ্বরের মতো উপসর্গগুলো দেখা দেয়। আর ৮৯ জনের ছিল প্রচলিত উপসর্গই—কাশি, শ্বাসকষ্ট, জ্বর।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর