ব্রেকিং:
রাঙামাটিতে নতুন করে ২ জন করোনায় আক্রান্ত, এনিয়ে মোট আক্রান্ত ৫৮ জন
  • বৃহস্পতিবার   ২৮ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনায় স্কুল বন্ধ কাপ্তাইয়ে অনলাইন ক্লাসের জনপ্রিয়তা বাড়ছে মুষলধারে বৃষ্টি, কাপ্তাইয়ে পাহাড় ধ্বসের আশংকা করোনা প্রতিরোধে রাঙামাটি রেড ক্রিসেন্টের ৯০ লাখ টাকার ‘নগদ অর্থ সহায়তা’ প্রদান করোনা রোগী সনাক্ত হওয়ায় কাপ্তাই পানি বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা লকডাউন লংগদুতে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ফার্মাসিস্ট করোনা পজেটিভ কাউখালীতে করোনা আক্রান্ত পুলিশ সদস্যদের খোঁজ নিলেন ইউএনও
২৮৫

চন্দ্রঘোনা চম্পাকুঁড়ি ও কানাডা খেলাঘরের ঈদ সামগ্রী পেল ৮৫ পরিবার

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২৩ মে ২০২০  


কাপ্তাই (রাঙামাটি) প্রতিনিধিঃ- জাতীয় শিশু কিশোর সংগঠন খেলাঘর আসর ও কানাডা শাখা খেলাঘর আসরের আর্থিক সহযোগিতায় ও কাপ্তাই উপজেলার চন্দ্রঘোনা চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের সমন্বয়ে চন্দ্রঘোনা কেপিএম এলাকায় বসবাসরত দুস্থ ও প্রতিবন্ধী ৮৫ পরিবারের মাঝে ঈদের উপহার স্বরূপ খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে।

"হাত বাড়িয়ে নয়, আজ মন বাড়িয়ে পাশে থাকি" এই স্লোগান কে হৃদয়ে ধারণ করে গত শুক্রবার (২২ মে) বিকেলে চন্দ্রঘোনাস্থ ঐতিহ্যবাহী শিশু-কিশোর সংগঠন চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসর কার্যালয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে পরিবার গুলোর মাঝে এই উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

এসময় চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের সভাপতি মোঃ শফিকুল ইসলাম মিলন, সহ-সভাপতি জাকির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মোঃ জয়নাল আবেদীন, সহ-সম্পাদক মীর জিল্লুর রহমান, অর্ণব মল্লিক, দপ্তর সম্পাদক মেহেরাজ হোসেন, কেপিএমের কর্মকর্তা প্রকৌশলী কামাল হোসেন, কাপ্তাই প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী মোশারফ হোসেনসহ সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত থেকে এই কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এসময় উপহার সামগ্রী হাতে পেয়ে অনেকের চোখে মুখে আনন্দের হাসি ফোটে এবং তারা খেলাঘর কানাডা শাখা এবং চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কথা হলে কানাডায় অবস্থানরত খেলাঘর কানাডা শাখার আহবায়ক চন্দ্রঘোনা চম্পাঁকুড়ি খেলাঘর আসরের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জামিল বিন খলিল জানান, কানাডায় অবস্থান করলেও চন্দ্রঘোনা ও চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের কথা প্রতিনিয়ত তিনি স্মরণ করেন। তিনি আরো জানান, চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই এই সংগঠনের সাথে তার পরম আত্মীয়তা। দেশের বাইরে থাকলেও তিনি এই চম্পাকুঁড়ির সাথে আত্মিকভাবে জড়িত। চন্দ্রঘোনার মানুষের সাথে রয়েছে তার নিবিড় সম্পর্ক এবং এই ক্রান্তিলগ্নে চন্দ্রঘোনায় বসবাসরত কিছু পরিবারের পাশে খুবই স্বল্প পরিসরে হলেও দাঁড়াতে পেরে তিনি আনন্দিত।

খেলাঘর কানাডা আসরের সদস্য সচিব শাপলা শালুক এই উদ্যোগের প্রতিটি পর্যায়ে সর্বাত্মক সহযোগিতা ও সমন্বয়ের জন্য চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের প্রতিটি সদস্যকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। চন্দ্রঘোনায় বসবাসরত চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের আওতাধীন কিছু পরিবারে সামান্য উপহার সামগ্রী দিতে পেরে খুব ভালো লাগছে বলে জানান। শাপলা শালুক এই উদ্যোগে সক্রিয় ভূমিকা রাখায় খেলাঘর কানাডা’র অন্যতম সংগঠক ফরিদা হকের প্রতিও আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের সভাপতি শফিকুল ইসলাম এবং সহ-সভাপতি মোঃ জাকির হোসেন খেলাঘর কানাডা আসরকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, করোনার এই দুঃসময়ে এধরনের সহযোগিতা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে এবং খেলাঘর কানাডা আসর যে কোন উদ্যোগের সাথে চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসর সার্বিক সহযোগিতা করে যাবে। তিনি উপহার সামগ্রী পাওয়া পরিবার ও চম্পাকুঁড়ি খেলাঘর আসরের পক্ষ থেকে খেলাঘর কানাডা আসরের সকলের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান এবং এই ধারাবাহিকতায় অন্যান্য বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন এভাবে মানুষের পাশে দাঁড়াবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
রাঙ্গামাটি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর