আলোকিত রাঙামাটি
  • মঙ্গলবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
রাঙামাটিতে নতুন করে আরো ২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। মোট আক্রান্ত- ১০৪০, মোট সুস্থ- ৯৪১, মোট মৃত্যু- ১৫ জন।
১২৫

জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হচ্ছে ১০০ কোটি ঘনফুট গ্যাস

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২০ অক্টোবর ২০২০  


১০০ কোটি ঘনফুট গ্যাস জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করতে ১০৮টি গ্যাস কূপ খননের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এরই অংশ হিসেবে ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইন, ২০১০ (২০১৮ সালের সর্বশেষ সংশোধনসহ)’ আওতায় রূপকল্প-৯ : ২ডি সাইসমিক প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য সাতটি লটে বিশেষজ্ঞ পরামর্শক নিয়োগ দেয়া হবে। এ জন্য সরকারের মোট ব্যয় হবে ১৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা।

সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সেবা নেয়ার সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাব পরবর্তী সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে উপস্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগ। এই বৈঠক আগামীকাল বুধবার অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

জানা গেছে, বিশেষ উদ্যোগের ১০টি প্রকল্পের মধ্যে রূপকল্প-৯ : ২ডি সাইসমিক প্রকল্প (২ডি সাইসমিক সার্ভে ওভার ব্লক ৮ ও ১১) অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের জন্য একটি ‘প্রকল্প প্রক্রিয়াকরণ’ কমিটি রয়েছে এবং কমিটিকে সহায়তা দেয়ার জন্য একটি করিগরি উপকমিটি গঠন করা হয়েছে। এ বিষয়ে জ্বালানি মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে পরার্শক প্রতিষ্ঠান নিয়োগ করতে অনেক সময়ের প্রয়োজন। তাই প্রকল্পটির গুরুত্বের কথা বিবেচনা করে ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানির দ্রুত সরবরাহ বৃদ্ধি (বিশেষ বিধান) আইন, ২০১০ (২০১৮ সালের সর্বেশেষ সংশোধনসহ)’ আওতায় সরাসরি ক্রয়ের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির অনুমোদন পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর সাথে দ্রুত সময়ের মধ্যে চুক্তি সম্পাদন করা হবে।

দেশে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহ দ্রুত বাড়াতে ‘রূপকল্প- ৯ : ২ডি সাইসমিক প্রকল্প’ বাস্তবায়নে আন্তর্জাাতিক পরামর্শক/বিশেষজ্ঞ নিয়োগ দিচ্ছে সরকার। প্রকল্পের সাতটি লটের কাজে সাতটি পরামর্শক প্রতিষ্ঠানকে নিয়োগ দেয়া হবে। এতে মোট ব্যয় হবে ১৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকা।

জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ‘রূপকল্প-৯ : ২ডি সাইসমিক প্রকল্প’-এর আওতায় অনুসন্ধান ব্লক নং ৮, ১০ ও ১১-এর অন্তর্গত কিশোরগঞ্জ, নরসিংদী, গাজীপুর, টাঙ্গাইল, জামালপুর, শেরপুর, ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, সুনামগঞ্জ, নোয়াখালী ও লক্ষ্মীপুর জেলায় মোট তিন হাজার ৫০০ কিলোমিটার লাইন ২ডি সাইসমিক সার্ভে পরিচালনা করা হবে। আগামী বছরের জুনের মধ্যে এর কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।
জানা যায়, প্রকল্প বাস্তবায়নে ২০১৮ সালের ৬ মে সাতটি লটের বিপরীতে ‘এক্সপ্রেশন অব ইন্টারেস্ট’ (ইওআই) আহ্বান করা হয়। এতে ৮টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। শেষ পর্যায়ে পাঁচটি প্রতিষ্ঠান লটভিত্তিক প্রস্তাব দেয়। চূড়ান্ত যাচাই-বাছাই শেষে সাতটি লটের জন্য তিনটি প্রতিষ্ঠানকে মনোনীত করেছে দরপত্র ও কারিগরি মূল্যায়ন কমিটি।

জানা যায়, সাতটি লটের কাজের মধ্যে লট-১ ও লট-৩-এর কাজটির জন্য মনোনীত হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার প্রতিষ্ঠান ‘আরপিএস এনার্জি পিটিওয়াই লিমিটেড’। এতে ব্যয় হবে যথাক্রমে ২৬ লাখ টাকা ও ২৭ লাখ টাকা।

লট-২ ও লট-৪-এর কাজের জন্য মনোনীত হয়েছে ফ্রান্সের প্রতিষ্ঠান ‘সিজিজি সার্ভিসেস এসএএস’। এতে ব্যয় হবে যথাক্রমে এক কোটি এক লাখ টাকা ও চার কোটি পাঁচ লাখ টাকা।

লট-৫, লট-৬ ও লট-৭-এর কাজের জন্য মনোনীত হয়েছে পানামার প্রতিষ্ঠান ‘স্কালম বার্জার সিয়াকো ইঙ্ক, পানামা’। এতে ব্যয় হবে যথাক্রমে দুই কোটি ৪৯ লাখ টাকা, ৪২ লাখ টাকা ও এক কোটি ২৫ লাখ টাকা।

জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ২০২১ সালের মধ্যে এক হাজার মিলিয়ন ঘনফুট স্থানীয় প্রাকৃতিক গ্যাস জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করার লক্ষ্যে ১০৮টি কূপ খননের কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ‘বাপেক্স’। এর মধ্যে ৫৩টি অনুসন্ধান কূপ, ৩৫টি উন্নয়ন কূপ ও ২০টি ওয়ার্ক-ওভার কূপ রয়েছে। প্রচলিত ক্রয়বিধি অনুসরণ করে নতুন গ্যাস ক্ষেত্রে অনুসন্ধান, আবিষ্কার ও উন্নয়ন করে জাতীয় গ্রিডে গ্যাস সরবরাহে দীর্ঘ সময় প্রয়োজন। সে কারণে সরকারের ‘রূপকল্প-২০২১’ বাস্তবায়নে ‘গ্যাস উন্নয়ন তহবিল ও জ্বালানি নিরাপত্তা তহবিল’-এর অর্থায়নে ১০টি প্রকল্প বাস্তবায়নের বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে বাপেক্স। এসব প্রকল্পের মধ্যে ‘রূপকল্প- ৯ : ২ডি সাইসমিক প্রকল্প’ (২ডি সাইসমিক সার্ভে ওভার ব্লক ৮ ও ১১) রয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে একটি ‘প্রস্তাব প্রক্রিয়াকরণ কমিটি’ও রয়েছে।

সূত্র;- নয়াদিগন্ত

 

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর