• বুধবার   ০৩ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছে না, সংক্রমণের আশঙ্কা রাজস্থলীতে রাঙামাটিতে শতভাগ মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতসহ সামাজিক দূরত্ব ও বাজার মনিটরিংয়ে মাঠে নেমেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন নানিয়ারচরে অসহায় ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে ত্রাণের চাল বিতরণ কাউখালীতে জনপ্রতিনিধিদের মাঝে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম বিতরণ রাঙামাটিতে এনজিও গুলোর ঋণ আদায় কার্যক্রম শুরু, বিপাকে ঋণ গ্রহীতরা
১৩২৭

পিসি আর ল্যাব ও আই সি ইউ প্রতিষ্ঠা এখন রাঙামাটির গণমানুষের দাবী

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ১৮ মে ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ- পাহাড়ের কন্যা রাঙামাটি। বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ জেলা এটি। তাছাড়া ৬ই মে এর আগ পর্যন্ত রাঙামাটিই বাংলাদেশের একমাত্র করোনামুক্ত জেলা ছিল। আর বর্তমানে ২৬ জন রোগী শনাক্ত হয়েছে। যাদের মধ্য থেকে ৪ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। কিন্তু এই জেলায় নেই কোনো পিসি আর ল্যাব কিংবা হাসপাতালে আই সি ইউ। যার ফলে সাধারণ জনগণের ভোগান্তির শেষ নেই। রাঙামাটির রয়েছে ১০টি উপজেলা। যেগুলোর সবকয়টিই বেশ দুর্গম।

করোনায় উপসর্গ আছে এমন লোকের নমুনা সদরে আসতে লেগে যায় অনেক সময়। তাছাড়া নমুনা সংগ্রহ করে পাঠাতে হয় ঢাকা অথবা চট্টগ্রাম এর কোনো ল্যাবে। নমুনা সংগ্রহের পর প্রায় ৭ থেকে ১০ দিন সময় লেগে যায় নমুনা পরিক্ষা করে ফলাফল জানতে। এতে সাধারণ জনগণের যেমন ভোগান্তি তেমনি বেকায়দায় পরছে প্রশাসন।

অন্যদিকে করোনার আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দেওয়ার মতো নেই কোনো আই সি ইউ। রোগী শনাক্ত হওয়ার পর যে হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নিয়ে সুস্থ হবে সেই সুযোগটুকুও পাচ্ছে না রাঙামাটিবাসী। তাই সমস্যা যেন চরম শিখরে।

তাই অত্র জেলার সাধারণ জনগণ ও বিভিন্ন সংগঠন হতে প্রশাসনের নিকট পিসি আর ল্যাব ও হাসপাতালে আই সি ইউ এর জন্য জোর দাবি জানানো হচ্ছে। বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যাচ্ছে রাঙামাটি জেলার মানুষের এই দাবির বহিঃপ্রকাশ।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
নগর জুড়ে বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর