ব্রেকিং:
ঢাকার মিরপুর থেকে বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনি ক্যাপ্টেন (অবসরপ্রাপ্ত) আবদুল মাজেদ গ্রেফতার।
  • বৃহস্পতিবার   ০৯ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৫ ১৪২৬

  • || ১৫ শা'বান ১৪৪১

সর্বশেষ:
বাঘাইছড়ি উপজেলা সাজেকের শিয়ালদাহ গ্রামে নতুন করে হামে আক্রান্ত ২০ শিশুকে চিকিৎসা সেবা দিয়েছে বিজিবি, ৮ এপ্রিল হেলিকপ্টারে নিউথাংনাক যাচ্ছে ৮ সদস্যের মেডিকেল টিম হাসপাতালে নেই আই‌সিইউ: প্রধানমন্ত্রীর দৃ‌ষ্টি আকর্ষন করলেন ডিসি কাপ্তাই হ্রদে ভেসে উঠা জমিতে বাম্পার ফলনেও কৃষকের মুখে হাসি নেই ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান কাপ্তাইয়ে ৭ হাজার ৯শ` টাকা জরিমানা করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে স্বেচ্ছায় ১৬ সদস্যের ইমার্জেন্সি টিম গঠন করেছে রাঙামাটি জেলা প্রশাসন সাজেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে, মঙ্গলবার থেকে হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইন শুরু
১০৪

প্রবাসীদের বাড়িতে বাড়িতে লাল নিশান

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২৪ মার্চ ২০২০  


সাতক্ষীরার ডিসি ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এস এম মোস্তফা কামালের নির্দেশে জেলার প্রতিটি উপজেলায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতামূলক অভিযান পরিচালনা করা হয়। 

প্রতিটি উপজেলায় ইউএনও, সহকারী কমিশনার (ভূমি) এবং সহকারী কমিশনারদের নেতৃত্বে বাজার মনিটরিং করা হয়, করোনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ হয়। হোম কোয়ারেন্টাইন অমান্য করায় মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে জরিমানা আদায়ের পাশাপাশি হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা হয়।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ব্রহ্মরাজপুর বাজারে দুটি চায়ের দোকানে মোবাইল কোর্টের অভিযান চলাকালে ওই দুই দোকান থেকে দুটি টেলিভিশন আটক করে ব্রহ্মরাজপুর ইউপি চেয়ারম্যানের জিম্মায় রেখেছে।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ব্রহ্মরাজপুর ইউপির বেলায়েত হোসেন গত বৃহস্পতিবার ভারত থেকে এসে উন্মুক্ত ঘোরাঘুরি করছে এমন অভিযোগের ভিত্তিতে তার বাসায় গিয়ে তাকে হোম কোয়ারেন্টাইন মেনে চলার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। 

ওই বাড়িতে লাল নিশান টাঙিয়ে দেয়াসহ ওই ব্যক্তির হাতে অমোচনীয় কালির সিল দেয়া হয়েছে। অভিযানের সময় ব্রহ্মরাজপুর ইউপি চেয়ারম্যান ও জেলা পুলিশের আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট দেওয়ান আকরামুল হক, ভোমরা স্থলবন্দরে অভিযান চালায়।  

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো. নূরল আমিন জেলার তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের বিভিন্ন পাইকারি ও খুচরা দোকানে মোবাইল কোর্টের অভিযান পরিচালনা করে বাজার মূল্য যাচাই করেন। অভিযান পরিচালনার সময় দেখা যায় দোকানগুলোতে বাজার মূল্য স্বাভাবিক রয়েছে। পণ্য তালিকা না টাঙানোয় চারটি দোকানে ৬ হাজার ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট উম্মে মুসলিমা জেলার বড়বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য যাচাই করতে অভিযান পরিচালনা করেন।

তালা উপজেলার খালিলনগর ইউপি, জালালপুর ইউপি বিদেশ ফেরত আগত ব্যক্তিদের বাড়িতে লাল নিশান টানিয়ে দেয়া হয়। বাসস্ট্যান্ডে স্প্রে করা হয়েছে। স্বেচ্ছাসেবীদের হ্যান্ড গ্লাভস এবং মাস্ক সরবরাহ করা হয়েছে।

দেবহাটা উপজেলায় ১৯ টি টিম মাঠ পর্যায়ে অভিযান পরিচালনা করছে। সচেতনতা, লিফলেট বিতরণ, হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করাসহ বিদেশ ফেরতদের বাড়িতে লাল পতাকা টাঙানো হয়েছে। এছাড়া বাজারমূল্য নিয়ন্ত্রণে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

কলারোয়ার চন্দনপুর ইউপির হোম কোরান্টাইনদের বাসায় লাল নিশান টানানো হয়েছে। বাজারে পণ্যের মূল্য স্বাভাবিক আছে।

শ্যামনগর উপজেলায় সদস্যদের সঙ্গে মিটিং করা হয় এবং মিটিং শেষে প্রায় ২০০ প্রবাসীদের বাড়িতে লাল নিশান টানানো হয়েছে।

কালিগঞ্জ উপজেলায় ১২টি বাজারে পাঁচ সদস্যের একটি করে টিম কাজ করছে। বাজারগুলোতে দ্রব্যমূল্যের দাম স্বাভাবিক আছে। প্রতিটি মুদি দোকানে মূল্য তালিকা শোভা পাচ্ছে।

আশাশুনি উপজেলায় হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করতে সিল মারা এবং লাল নিশান লাগানোর কার্যক্রম চলমান আছে। বাজার মনিটরিং করে দেখা যায় দ্রব্যের দাম নিয়ন্ত্রণে আছে।

জনস্বার্থে এই ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
সারাদেশ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর