আলোকিত রাঙামাটি
  • রোববার   ১২ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪২৭

  • || ২১ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনা জয় করে কাজে যোগ দিলেন কাপ্তাই থানার ওসি নাসির রাঙামাটিতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলো জেলা প্রশাসন কাপ্তাইয়ে ১১ হাজার ফলজ, বনজ চারা বিতরণ করলো রাঙামাটি জেলা পরিষদ নানিয়ারচরে মাসিক আইন শৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত সিভিল সার্জনের হাতে চিকিৎসা সরঞ্জাম তুলে দিলেন দীপংকর তালুকদার কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রঃ প্রতিদিন ৮ জন রোগীর নমুনা সংগ্রহে জেলা সিভিল সার্জনের নির্দেশনা রাঙামাটি জেলায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ২৪ জন, এ নিয়ে মোট আক্রান্ত ৪৪২
১২৯৯

বাঘাইছড়িতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ 

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২৪ জুন ২০২০  


|| বাঘাইছড়ি প্রতিনিধি || রাঙামাটির বাঘাইছড়িতে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে উপজেলার ৩৭৮নং মারিশ্যা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের দুই বাসিন্দা মোঃ নাছির উদ্দিন, পিতা, সাহেব আলী ও নুরুন্নাহার বেগম, স্বামী, ইদ্রিশ আলী।

তারা উভয়েই প্রতিবেশী দীর্ঘ ২০ বছর পূর্বে ক্রয় ও বিক্রয়কৃত জমির সীমানা নির্ধারন নিয়ে তারা একে অপরকে দোসছেন। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বার বার বিরোধ মিটানোর চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়েছে পরে উভয়েই রাঙামাটি জেলা আদালতে মামলা করে যাহা বর্তমানে চলমান রয়েছে। মামলা চলমান থাকার পরও বিরোধ পূর্ণ জায়গায় স্থাপনা নির্মাণ ও নানান অজুহাতে একে অপরের সাথে হাতাহাতি মারামারিতে জড়িয়ে পড়ছেন।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি এমএ মনজুরের নেতৃত্বে একাধিকবার পুলিশও ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে সমাধান দেয়ার চেষ্টা করেছেন   এ অবস্থায় উভয় পক্ষই ঘটনার প্রতিকার চেয়ে লিখিত ভাবে আবেদন করেছে বাঘাইছড়ি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সম্পাদকের কাছে।

বুধবার (২৪ জুন) প্রেসক্লাব প্রতিনিধি দল সরেজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে ভুক্তভোগী পরিবার ও আশপাশের লোকজনের সাথে কথা বলে এবং তাদের উভয়কে আদালতের প্রতি সম্মান দেখিয়ে বিরোধে না জড়ানোর অনুরোধ করেন এবং সম্ভব হলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মাধ্যমে আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি মীমাংসার জন্য বলেন তাতে এক পক্ষের সাড়া পেলেও অন্যপক্ষ নিরব থাকে।

বাঘাইছড়ি থানার মামলার আইও এসআই রমজান বলেন, উভয় পক্ষকে ডেকে বলা হয়েছে যে যার অবস্থানে থাকবে কিন্তু উভয় পক্ষই সর্তভঙ্গ করে ঝগড়ায় লিপ্ত হয়।

জমির দাবিদার নাছির উদ্দিন অভিযোগ করেন জায়গাটি আমার পৈতৃক সম্পত্তি আমরা এখানে দীর্ঘ ষাট বছরের বেশী সময় ধরে বসবাস করছি আমাদের নামে জমি রেজিষ্টেশনও রয়েছে কিন্তু বিবাদী নুরুন্নাহার বেগম আমার প্রতিবেশী মৃত শাজাহান আলীর নিকট হতে জায়গা ক্রয়ের দাবী করে আমাদের জায়গায় বসতঘর নির্মাণ করে এবং আমি সহ আমার পরিবারের সদস্যদের নিয়মিত হুমকি প্রদান ও মারধর করে তাদের আহত করে। আমি বাঁধা দেয়ার চেষ্টা করিলে আমাকেও মারাত্মক ভাবে আহত করে এবং বিভিন্ন জায়গায় আমার নামে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করে।

এদিকে নুরুন্নাহার অভিযোগ করেন আমি বিগত ২০ বছর পূর্বে ০. ১৫ শতক জায়গা ক্রয়করি মৃত শাজাহান আলীর কাছ থেকে সে আমাকে ০.১৩ শতক জায়গা বুঝিয়ে দেয় এবং বাকি জায়গা বুজিয়ে দেয়ার পূর্বেই সে মৃত্যুবরণ করে তাই আমি বাকি জায়গা বুঝিয়া নিতে পারি নাই এদিকে একই জায়গা আমার বিবাদি নাছির উদ্দিন দাবী করিলে আমি আদালতে মামলা করি আদালতে মামলার রায়ের পূর্বে সে স্থাপনা তৈরি করার চেষ্টা করলে আমরা বাধা দেয়ার চেষ্টা করি এতে  আমাকেসহ আমার পরিবারের সদস্যদের মারধর করে আহত করে আমি এই ঘটনার সঠিক বিচার চাই।

স্থানীয় কাউন্সিলর বাহার উদ্দিন সরকার বলেন, আমরা বিষয়টি নিয়ে বহুবার চেষ্টা করেও ব্যার্থ হয়েছি আগামী শনিবার দুই পক্ষকেই ডেকে বসে মীমাংসার চেষ্টা করবো।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
রাঙ্গামাটি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর