ব্রেকিং:
করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবিলায় গণপরিবহন ১১ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ
  • শনিবার   ০৪ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২১ ১৪২৬

  • || ১০ শা'বান ১৪৪১

সর্বশেষ:
করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে রাজস্থলী থানার পুলিশের বিরামহীন প্রচারণা দূর্গম পাহাড়ের আনাচে কানাচে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন রাজস্থলী ইউএনও শেখ ছাদেক বাঘাইছড়িতে জীপ ও মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ২ রাঙামাটিতে হোম কোয়ারেন্টাইনে ১৮৬ জনের মধ্যে ছাড়পত্র পেয়েছে ১১৯ জন, বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ৬৭ জন কাপ্তাইয়ে ত্রাণ সহায়তা পেল আরো ৩৮৩ জন লংগদুতে প্রেমে ফাটলের জেরে ফাঁস দিলো কিশোরী
১৮৪৭২

মাটিরাঙ্গায়

বিজিবি’র সাথে গ্রামবাসীর সংঘর্ষ; বিজিবি সদস্যসহ নিহত ৫

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ৩ মার্চ ২০২০  


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ- খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা পৌরসভার গাজীনগর এলাকায় ৩রা মার্চ মঙ্গলবার দুপুর ১২টা নাগাদ ব্যক্তিমালিকানাধীন বাগানের গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে বিজিবি’র সাথে ও গ্রামবাসীর সংঘর্ষে একজন বিজিবি সদস্যসহ ৫জন নিহত হয়েছে। ঘটনার পর পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, বাগান মালিক সাহাব মিয়া সকালে তার নিজের বাগান থেকে বেশকিছু গাছ কাটে। গাছগুলো গাড়িযোগে নেয়ার সময় গাছগুলো অবৈধ দাবি করে বিজিবি সদস্যরা জব্দ করে তাদের হেফাজতে নিতে চায়। এক পর্যায়ে পুরো এলাকাবাসী সমবত হয়ে বিজিবি সদস্যদের প্রতিহত করার চেষ্টা করলে এলাকবাসীর সাথে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ ঘটনায় বিজিবি সদস্যরা জড়ো হওয়া লোকদের নিয়ন্ত্রণে গুলিবর্ষণ করলে ঘটনাস্থলেই বিজিবি সদস্য শাওন, বাগান মালিক সাহাব মিয়া প্রকাশ মুছা (৫৭), সাহাব মিয়ার ছেলে আহম্মদ আলী, এলাকাবাসী মোঃ আলী আকবর হাসপাতালে নিহত হয়। নিজের স্বামী ও সন্তানের মৃত্যু সংবাদ শুনে সাহাব মিয়ার স্ত্রী রঞ্জু বেগম হৃদ যন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মারা যান। এছাড়া গুরুতর আহত অবস্থায় মো: মফিজ মিয়া ও মো: হানিফ নামের দুই গ্রামবাসীকে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এরমধ্যে মফিজ মিয়া পথিমধ্যে মারা গেছেন বলে জানিয়েছেন মাটিরাঙার পৌর মেয়র।

মাটিরাঙ্গা পৌর মেয়র সামছুল হক একজন বিজিবি সদস্যসহ পাঁচ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে জানান, গাছ কাটাকে কেন্দ্র করে অনাকাঙ্খিত ও হৃদয় বিদারক এ ঘটনা ঘটেছে।

স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে বিজিবি সদস্যসহ দুই জনের মরদেহ মাটিরাঙা উপজেলা হাসপাতালে এবং দুই জনের মরদেহ উদ্ধোরের কাজ চলছে।

গুইমারা রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ শাহরিয়ার জামান, জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র  বিশ্বাস ও পুলিশ সুপার মো: আব্দুল আজিজসহ প্রশাসনের উধ্বতন কর্মকতারা পরিদর্শনে করে ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে এলাকাবাসীকে শান্ত থাকার আহবান জানান।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম সালাউদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আমরা কাজ করছি।

 

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
পার্বত্য চট্টগ্রাম বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর