আলোকিত রাঙামাটি
  • শুক্রবার   ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ||

  • ফাল্গুন ১৫ ১৪২৭

  • || ১৪ রজব ১৪৪২

সর্বশেষ:
রাঙামাটিতে করোনায় মোট আক্রান্ত- ১২৫৮, মোট সুস্থ- ১২১১, মোট মৃত্যু- ১৬ জন।

মুজিববর্ষে উদ্বোধনের অপেক্ষায় নওগাঁর দু’টি মডেল মসজিদ

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১  

নওগাঁর পোরশায় নির্মিত মডেল মসজিদ মুজিববর্ষ উপলক্ষে উদ্বোধনের অপেক্ষায়।

মুজিববর্ষ উপলক্ষে চলতি বছরের ১৭ মার্চ সারাদেশে ৫০টি মডেল মসজিদের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরই মধ্যে নওগাঁর সাপাহার ও পোরশা উপজেলার দুটি মসজিদ উদ্বোধনের তালিকায় রয়েছে। এ দুটি মসজিদ নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ প্রান্তে।

ইসলামি মূল্যবোধের প্রসার ও সংস্কৃতি বিকাশের উদ্দেশ্যে দ্বীনি শিক্ষা ব্যবস্থা, গবেষণা ও জ্ঞান চর্চায় সারা দেশের ন্যায় নওগাঁয় মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র তৈরি করা হচ্ছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের তত্ত্বাবধানে এসব মসজিদ পরিচালিত হবে। 

মসজিদের খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেম সবাই সরকারি রাজস্ব বেতনভুক্ত হবেন বলে জানা গেছে। 

নওগাঁ গণপূর্ত অফিস সূত্রে জানা যায়, জেলায় মোট ১২টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে। জেলা পর্যায়ে একটি চারতলা বিশিষ্ট এবং জেলার ১১টি উপজেলায় ১১টি তিনতলা বিশিষ্ট। প্রায় ১২ হাজার বর্গফুটের জায়গার ওপর জেলা ও উপজেলায় একই আদলে মডেল মসজিদ নির্মাণ করা হচ্ছে। এসব মসজিদ হবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। যার প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে জেলা পর্যায়ে ১৬ কোটি টাকা এবং উপজেলা পর্যায়ে ১২ কোটি টাকা। 

যেখানে থাকবে-ইমামদের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অফিস, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের রিসার্চ সেন্টার, লাইব্রেরি, প্রতিবন্ধীদের জন্য সেন্টার ও নামাজের সুব্যবস্থা, পর্যটকদের ভ্রমণসুবিধার কক্ষ, খতিব, ইমাম, মুয়াজ্জিন, খাদেমের থাকার পৃথক ব্যবস্থা, হিফজ ও মক্তব খানা, প্রধান নামাজ ঘর, মরদেহ গোসলের ব্যবস্থা এবং পার্কিং ব্যবস্থা। এছাড়া নারী-পুরুষদের জন্য আলাদা অজু ব্যবস্থা এবং পৃথক নামাজের কক্ষ থাকবে। 

এদিকে, ধামইরহাটে বৈদ্যুতিক খুঁটি, মান্দা ও বদলগাছীতে পুরাতন স্থাপনা এবং মহাদেবপুরে জমি নিয়ে জটিলতা থাকায় এখনো মসজিদ নির্মাণের কাজ শুরু হয়নি। অন্য মসজিদগুলো করোনা মহামারিতে রড-সিমেন্ট-পাথরসহ অন্যান্য সামগ্রীর সংকট থাকায় কাজ এগিয়ে নেয়া সম্ভব হয়নি। তবে এখন পুরোদমে কাজ চলছে। 

জেলা শহরের মুক্তির মোড়ে মসজিদটি পাইলিংয়ের কাজ শেষ করে পিলার উঠানোর কাজ চলছে। এছাড়া সদরের তাজের মোড় সংলগ্ন ধুপাপাড়ার মসজিদের গ্রাউন ফ্লোরের কাজ শেষ করে দ্বিতীয় তলার কাজ চলছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, টাকা না থাকায় কাজ এগিয়ে নেয়া সম্ভব হচ্ছে না।

নওগাঁ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপপরিচালক মো. গোলাম মোস্তফা বলেন, মসজিদের পরিবেশ হবে মনোরম। ধর্মপ্রাণ মানুষ পবিত্র কোরআন ও হাদিসের জ্ঞান অর্জনে লাইব্রেরি থেকে সুবিধা পাবে। হাজার হাজার মুসল্লি দীনি দাওয়াতি কার্যক্রম পরিচালনার সুযোগ পাবেন। কোরআন শরিফ হিফজ, শিশুদের প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা অর্জন, গবেষকদের জন্য গবেষণার সুযোগ সৃষ্টি হবে। 

তিনি বলেন, জমি অধিগ্রহণ, পুরাতন স্থাপনা থাকা ও বৈদ্যুতিক খুঁটি থাকায় এখনো চারটি মসজিদের কাজ এখনো শুরু হয়নি। তবে আগামী মার্চ মাস থেকে কাজ শুরু হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

নওগাঁ গণপূর্ত বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আল মামুন বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে জেলা থেকে দুইটি মসজিদের উদ্বোধন করা হবে। দ্রুত গতিতে ওই দুই মসজিদের কাজ এগিয়ে চলছে। তবে পূর্ণাঙ্গভাবে সম্পূর্ণ হতে আরো প্রায় দুই মাস সময় লাগবে। তার আগে মুসল্লি যেন নামাজ পড়তে পারেন মসজিদ দু’টি সেভাবে ব্যবহার যোগ্য করে তোলা হবে। আর কাজ একেবারে সম্পূর্ণ হলে পূর্ণাঙ্গভাবে উন্মুক্ত করা হবে। 

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি