আলোকিত রাঙামাটি
  • মঙ্গলবার   ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৪ ১৪২৭

  • || ১০ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
রাঙামাটিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন পালিত সরকার তথ্য অধিকার আইন নিশ্চিত করার ফলে বর্তমানে জনগণকে তথ্য পেতে এখন আর কোন বাধা পেতে হয় না বলে মন্তব্য করেছেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ।
১৪১১

রাঙামাটিতে ধর্মীয় গুরু বনভান্তের ১০১তম জন্ম বার্ষিকী পালন

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ৮ জানুয়ারি ২০২০  


৮ জানুয়ারী বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের সর্বোচ্চ ধর্মীয় গুরু মহাসাধক শ্রীমৎ সাধনানন্দ মহাস্থবির বনভান্তের ১০১তম শুভ জন্মজয়ন্তী। এ দিবসকে কেন্দ্র করে রাঙামাটি রাজবন বিহারে নানা অনুষ্ঠান পালন হচ্ছে। সপ্তাহব্যাপী চলমান অনুষ্ঠানে বুধবার হচ্ছে শেষ দিন।

বুধবার রাত ১২ টা ১ মিনিটে বনভান্তের জন্মদিনের কেক কাটেন ভান্তের প্রধান শিষ্য প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবির। এ সময় বনভান্তের অন্যান্য শিষ্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

ভান্তের জন্মদিন উপলক্ষে সকালে বনভান্তের মমিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান শিষ্য, ভক্ত পূণ্যার্থীরা। তখন হাজারো বৌদ্ধ নর-নারী ফুল নিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে রাজবন বিহার প্রাঙ্গণে ভিড় জমান।

এরপর বিহারের পশ্চিম মাঠে সংঘদান, অষ্টপরিস্কার দান, বুদ্ধমুর্তি দানসহ নানান দান অনুষ্ঠান ও বনভান্তের জীবনী নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় ধর্ম আলোচনা সভা। 

ধর্মীয় আলোচনা সভায় শ্রীমৎ সাধনানন্দ মহাস্থবির বনভান্তের পবিত্র বাণী মনে করেই নিজের জীবনের সকল পাপ মুক্তির আশাবাদ নিয়ে আর পার্বত্য এলাকার শান্তি যেনো অব্যাহত থাকে সে মনবাসনা মহান বুদ্ধের কাছে পৌঁছে দিতে চেয়েছেন বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা।

উল্লেখ্য, দেশের বৃহত্তম বৌদ্ধ মন্দির রাঙামাটি রাজ বন বিহারের অধ্যক্ষ ও আর্যপুরুষ শ্রীমৎ সাধনানন্দ মহাস্থবির বনভান্তে ১৯২০ সালের ৮ জানুয়ারী রাঙামাটি সদর উপজেলার মগবান ইউনিয়নের মোড়ঘোনা গ্রামের জন্ম গ্রহন করেন। তিনি ২০১২ সালের ৩০ জানুয়ারী ৯৩ বৎসর বয়সে পরিনির্বাণ (দেহত্যাগ) লাভ করেন। বর্তমানে বনভান্তের মরদেহটি বিজ্ঞান সম্মতভাবে পেটিকাবদ্ধ (বিশেষ কফিন) অবস্থায় রাঙামাটির রাজ বন বিহারে রাখা হয়েছে। তারই জন্মজয়ন্তীর স্মৃতিস্বরণে সপ্তাহব্যাপী রাঙামাটি শহর জুড়ে আয়োজন করা হয় মহাধর্মীয় উৎসব।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি