ব্রেকিং:
স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী ১লা জুন থেকে রাঙামাটির ৬ টি উপজেলায় লঞ্চ চলাচল শুরু
  • রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

সর্বশেষ:
‘হাসপাতাল গুলোতে পর্যাপ্ত চিকিৎসা সরঞ্জাম নিশ্চিত করা হবে’ কাঁচামাল সংকটে একসপ্তাহ ধরে কেপিএমের উৎপাদন বন্ধ করোনায় ঈদে পর্যটক শূন্য রাঙামাটি, স্পটে নেই মানুষের কোলাহল রাঙামাটি জেলা সদর হাসপাতালে পিসিআর ল্যাব, আইসিইউ স্থাপন ও কিডনী ডায়ালেসিস এর ব্যবস্থা নিতে জোর দাবী জানিয়েছেন রাঙামাটি সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার এমপি বাঘাইছড়িতে কৃষকের কাছ থেকে বোরো ধান সংগ্রহের লটারি অনুষ্ঠিত
৩১৭০

রাঙামাটির দুর্গম অঞ্চলেও বাড়ি বাড়ি ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে সেনাবাহিনী

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২৮ এপ্রিল ২০২০  

সেনাবাহিনীর সদস্যরা নিজের কাঁধে বহন করে রাঙামাটির দুর্গম অঞ্চলের প্রায় ৩ শতাধিক দুস্থ, গরীব এবং অসহায় জনগোষ্ঠীর পরিবারের হাতে এই সকল ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেয়। ছবি: আলোকিত রাঙ্গামাটি


নিজস্ব প্রতিবেদকঃ- করোনা ভাইরাসের প্রার্দুভাব মোকাবেলায় রাঙামাটির দুর্গম পাহাড়ী গ্রামগুলোতে সেনাবাহিনী তাদের নিজস্ব প্রাপ্ত রেশন থেকে রেশন বাঁচিয়ে কর্মহীন দুস্থদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দিয়েছে রাঙামাটি সদর জোন। এতে স্বস্তি ফিরেছে পাহাড়ের অসহায় বাসিন্দাদের মাঝে। 

মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) সকালে রাঙামাটির উলুছড়িসহ বিভিন্ন পাহাড়ী গ্রামগুলোতে ঘরে ঘরে গিয়ে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেন রাঙামাটি সদর জোনের জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল মোঃ রফিকুল ইসলাম পিএসসি।



সকালে রাঙামাটির ৪টি পাহাড়ী ও বাঙ্গালী গ্রামে সেনাবাহিনীর সদস্যরা নিজের কাঁধে করে রাঙামাটি সদর উপজেলার দূর্গম উলুছড়ি, শিমুলতলী, পাবলিক হেলথ ও ডুবাছড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় প্রায় ৩ শতাধিক দুস্থ, গরীব এবং অসহায় জনগোষ্ঠীর পরিবারের হাতে এই সকল ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দেয়া হয়।



ত্রাণের প্রতিটি ২০ থেকে ২২ কেজি ওজনের প্যাকেটে চাল, আটা, পেঁয়াজ, ডাল, এবং তেলসহ প্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরণ করা হয়। এছাড়া উক্ত এলাকা সমূহ গরীব ও দুস্থ পরিবার সমূহকে সাহায্য সহযোগিতা নিশ্চিত করাসহ তাদেরকে নিজ বাড়ীতে অবস্থান করতে উৎসাহিত যোগাচ্ছেন তারা। 

ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সময় রাঙামাটি সদর জোনের জোন কমান্ডার লেঃ কর্ণেল মোঃ রফিকুল ইসলাম পিএসসি বলেন, সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তার পাশাপাশি জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাড়ীর বাইরে না যাওয়া এবং করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা গড়ে তোলাসহ সবাইকে সঠিক ভাবে হাত ধোয়া, মাস্ক পরিধান করা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য আহবান জানান।



তিনি আরো বলেন, কোন দূর্যোগপূর্ণ মুর্হুতে সেনাবাহিনী সার্বক্ষণিক জনগণের পাশে ছিল এং আগামীতেও থাকবে। এই জনকল্যাণমূলক উদ্যোগ ভবিষ্যতে অব্যাহত থাকবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এ সময় রাঙামাটি সদর জোনের বিভিন্ন ক্যাম্পের উর্দ্ধতন সেনা কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এই নিয়ে রাঙামাটি জোনের আওতাধীন এলাকার প্রায় ৮ শতাধিক পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা প্রদান করেছে রাঙামাটি জোনের দায়িত্বে থাকা ২০ বীর। 

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
রাঙ্গামাটি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর