আলোকিত রাঙামাটি
  • শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১১ ১৪২৭

  • || ০৭ সফর ১৪৪২

সর্বশেষ:
করোনা জয় করে প্লাজমা দিচ্ছেন রাঙামাটি জেলা পুলিশের ৫১ সদস্য
১৬৫৪

লংগদুতে জেএসএস (সন্তু)`র ১১ নেতা-কর্মীর নামে মামলা দায়ের

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২৩ জুলাই ২০২০  


লংগদু (রাঙামাটি) প্রতিনিধিঃ- রাঙামাটির লংগদু উপজেলা সদরে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (এমএন লারমা) যুব সমিতির সদস্য সুজয় চাকমা (২৩) নামে এক সদস্য গুলিবিদ্ধ হওয়ার ঘটনায় জেএসএস (সন্তু লারমা) দলের ১১ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে লংগদু থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জেএসএস (সংস্কার) দলের লংগদু উপজেলার সদস্য সুজয় চাকমা বাদী হয়ে বুধবার লংগদু থানায় জেএসএস (সন্তু) দলের সাধারণ সম্পাদক মনিশংকর চাকমাকে প্রধান আসামী করে ১১ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। লংগদু থানা মামলা নং-০৩, তারিখ-২২-০৭-২০২০ইং।

মামলার অপর আসামীরা হলেন, যশো চাকমা (৪৩) পিতা-মৃত ভূপতি রঞ্জন চাকমা, মিলন চাকমা (৪০) পিতা রঞ্জিত চাকমা, রুপেন চাকমা (৩৫) পিতা-বাশি মোহন চাকমা, কাজল বিকাশ চাকমা (২৫), পিতা-মৃত বিমল চাকমা, বাবলু মনি চাকমা (২৫) পিতা জ্ঞান চাকমা, অয়ন্তিময় চাকমা মেম্বার (৪৮) পিতা শুক্র কুমার চাকমা, অর্জন চাকমা (২৬) পিতা মৃত সোনা চাকমা, রমেল চাকা (২৫) পিতা অমিত চাকমা, চিক্লোলো চাকমা পিতা সরশ বিকাশ চাকমা, সপ্পো কালা চাকমা পিতা-রাজমুখী চাকমা।  

গত ১৫ জুলাই রাত আনুমানিক দেড়টা সময় লংগদু উপজেলা সদরে তিনটিলা এলাকায় গোডাউনের কোয়াটারস্থ জেএসএস (সংস্কার) এর কার্যালয়ে আমি এবং আমর পার্টির নেতা-কর্মী সহ ঘুমাচ্ছিলাম। এ সময় উলে­খিত বিবাদীগণ আমাদের হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা করে এলোপাতাড়ী গুলি করলে আমরা ঘুম থেকে জেগে উঠতেই ৪/৫জন (মুখ বাধা) আমাদের রুমে ডুকে সবাইকে মারধর এবং আমাকে বুকে গুলি করলে আমি আহত হই। তান্ডব করে পরে তারা পালিয়ে যায় বলে মামলার বাদী সুজয় চাকমা তার এজাহারে উল্লেখ করেছে। 

লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ সৈয়দ মোহাম্মদ নুর জানায়, বাদীর যথাযথ অভিযোগের প্রেক্ষিতে এটি নিয়মিত মামলা রজ্জু করা হয়েছে। আসামীদের ধরার জন্য আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে। 

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
রাঙ্গামাটি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর