ব্রেকিং:
খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ’র চাঁদাবাজ ও সশস্ত্র সন্ত্রাসী একশন বাবু আটক খাগড়াছড়িতে নিরাপত্তা বাহিনী ও ইউপিডিএফ’র গুলিবিনিময়; গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক ইউপিডিএফ সন্ত্রাসী আটক, সর্টগান ও ২১ রাউন্ড গুলি উদ্ধার
  • সোমবার   ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১১ ১৪২৬

  • || ২৯ জমাদিউস সানি ১৪৪১

সর্বশেষ:
‘বর্তমান সরকার উন্নয়ন ও শিক্ষা বান্ধব’ বান্দরবানে দুর্বৃত্তের গুলিতে আওয়ামী লীগ নেতা নিহত, আতঙ্কিত হয়ে একজনের মৃত্যু, গুলিবিদ্ধ আরো ৫ খাগড়াছড়িতে অটোরিকশা উল্টে নিহত ১ পাহাড়ে যোগাযোগের নবদিগন্ত নানিয়ারচরের ‘চেঙ্গী সেতু’ বারি পেঁয়াজ-৫ চাষের মাধ্যমে পাহাড়ে অর্থনৈতিক অর্জন সম্ভব রাঙামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন মরণব্যাধি ক্যানসারের কাছে হেরে গেলেন সাজেকের সাধন চাকমা
২৮৯

শাস্তি পেলেন বাংলাদেশ-ভারতের পাঁচ ক্রিকেটার

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ফাইল ফটো


অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনাল শেষে বাংলাদেশ ও ভারতের কয়েকজন ক্রিকেটার নিজেদের মধ্যে ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েন। এ জন্য আইসিসি উভয় দলের পাঁচ খেলোয়াড়কে কয়েক ম্যাচ নিষিদ্ধ করেছে।

শাস্তি পাওয়া বাংলাদেশ তিনজন হলেন- তৈাহিদ হৃদয় (১০ ম্যাচ নিষিদ্ধ), শামীম হোসেন (৮ ম্যাচ নিষিদ্ধ) এবং রকিবুল হাসান (৪ ম্যাচ নিষিদ্ধ)। ভারতের দুই ক্রিকেটারের মধ্যে আকাশ সিং নিষিদ্ধ হয়েছেন ৬ ম্যাচ আর লেগস্পিনার রবি বিশ্নয়কে নিষিদ্ধ করা হয়েছে ৫ ম্যাচ। এই ক্রিকেটাররা অনুর্ধ্ব-১৯ বা ‘এ’ দলের হয়ে সামনের ওয়ানডে অথবা টি- টোয়েন্টি ম্যাচে এই নিষেধাজ্ঞার শাস্তি ভোগ করবেন।

আইসিসি জানিয়েছে, ফাইনাল ম্যাচ শেষে নিজেদের মধ্যে বিতর্ক এবং ধাক্কাধাক্কি করে তারা ক্রিকেটের স্পিরিট নষ্ট করেছেন। মাঠের খেলোয়াড় ও স্টাফদের মধ্যে আইসিসির বিধি বিধানের লেভেল তিন ভঙ্গ করেছেন। তাই এই শাস্তি।

ফাইনালের ম্যাচ রেফারি গ্রায়েম ল্যাবরয় জানান, বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার তৈাহিদ হৃদয়, শামীম হোসেন ও রকিবুল হাসান এবং ভারতের দু’জন খেলোয়াড় আকাশ সিং ও রবি বিশ্নয়ের বিরুদ্ধে আইসিসি’র এই বিধি বিধানের ২.২১ ধারা ভঙ্গের অভিযোগ আনা হয়েছে। 

ম্যাচ রেফারি ভিডিও ফুটেজ দেখে অভিযুক্ত ক্রিকেটারদেরকে জবানবন্দি নেন। অভিযুক্ত পাঁচ ক্রিকেটারই তাদের দোষ স্বীকার করে নেন।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
খেলা বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর