আলোকিত রাঙামাটি
ব্রেকিং:
রাঙামাটি জেলায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৯ জন, মোট আক্রান্ত ৪৫১
  • মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

সর্বশেষ:
দীঘিনালা বেইলী ব্রিজ সংস্কার প্রয়োজনে ২ দিন বন্ধ থাকবে বাঘাইছড়ি-খাগড়াছড়ি সড়ক যোগাযোগ কাপ্তাইয়ে দুস্থ মহিলাদের মাঝে জেলা পরিষদের সেলাই মেশিন বিতরণ বাঘাইছড়িতে পাহাড়ধসে উপজেলা সদরের সাথে খেদারমারা ইউনিয়নের সড়ক যোগাযোগ বন্ধ কাপ্তাইয়ে দুদকের বির্তক প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ সেলাই মেশিন, বাদ্যযন্ত্র ও নগদ অর্থ বিতরণ করলো দীপংকর তালুকদার করোনা জয় করে কাজে যোগ দিলেন কাপ্তাই থানার ওসি নাসির রাঙামাটিতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলো জেলা প্রশাসন
৪০৯

সুস্থ হওয়ার পরও করোনায় আক্রান্তের ঝুঁকি রয়েছে: ডব্লিউএইচও

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ২৬ এপ্রিল ২০২০  


করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হয়ে উঠলেই কেউ দ্বিতীয়বার আক্রান্ত হবে না এমন কোনো প্রমাণ এখনো পাওয়া যায়নি। তাই যেসব দেশ ‘ইমিউনিটি পাসপোর্ট’ বা ‘ঝুঁকিমুক্ত সনদ’ দিচ্ছে, তাদের সতর্কবার্তা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রধান টেড্রস অ্যাধনম গেব্রিয়াসেস।

শনিবার এক অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানান তিনি।

ডব্লিউএইচও এর প্রধান বলেন, অনেক দেশেই কোভিড-১৯ থেকে সেরে ওঠা রোগীদের যে ‘ইমিউনিটি পাসপোর্ট’ দিচ্ছে তার কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। অর্থাৎ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়ে সেরে ওঠার পর ফের আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। তাই যারা করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তাদেরকে ‘সংক্রমণমুক্তের পাসপোর্ট’ বা ‘ঝুঁকিমুক্ত সার্টিফিকেট’ দেয়ার অর্থ হচ্ছে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকিকে বাড়িয়ে দেয়া। কারণ এরা হয়তো পরবর্তীতে করোনা প্রতিরোধে দেয়া উপদেশগুলো মেনে চলতে চাইবে না।

ডব্লিউএইচও এর প্রধান আরো বলেন, করোনাভাইরাসকে চূড়ান্তভাবে মোকাবিলার জন্য ডব্লিউএইচও তার সহযোগী দেশ ও প্রতিষ্ঠানগুলোকে সঙ্গে নিয়ে চিকিৎসায় প্রয়োজনীয় ওষুধ ও ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের কাজ শুরু করেছে। যদিও, এই অংশীদারিত্বমূলক কার্যক্রমে অংশ নেয়নি যুক্তরাষ্ট্র।

গত সপ্তাহে লাতিন আমেরিকার দেশ চিলে বলেছে, যারা করোনাভাইরাস সংক্রমণমুক্ত হয়েছেন তাদেরকে ‘স্বাস্থ্য সনদ’ দেয়া হবে। ভাইরাস প্রতিরোধে তাদের দেহে অ্যান্টিবডির উন্নয়ন হলেই তারা দ্রুত কার্মস্থলে ফিরতে পারবেন।

উল্লেখ্য, গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। ভাইরাসটির উৎপত্তিস্থল এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছে ৮২ হাজার ৮২৭ জন। এর মধ্যে ৪ হাজার ৬৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

বিশ্বে মোট দুই লাখ ৩ হাজার ২৭২ জন করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ লাখ ২১ হাজার ৪৩৯ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৮ লাখ ৩৬ হাজার ৯৭৮ জন।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি
ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর