আলোকিত রাঙামাটি
  • শনিবার   ১৫ মে ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১ ১৪২৮

  • || ০২ শাওয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
রাঙামাটিতে করোনায় নতুন আক্রান্ত আরো ২ জন। মোট আক্রান্ত হয়েছেন- ১৪৭৪, মোট সুস্থ- ১৪৩৫, মোট মৃত্যু ১৭ জন।

সেই দুর্নীতিবাজ ও বিতর্কিত পিআইও নুরুন্নবীকে এবার বান্দরবানে বদলি

আলোকিত রাঙামাটি

প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল ২০২১  

বাঘাইছড়ি উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকার/ ফাইল ছবি 

বাঘাইছড়ি (রাঙামাটি) প্রতিনিধিঃ- অনিয়ম- দুর্নীতি ও অসদাচরণের দায়ে পদাবনতি (শাস্তি পাওয়া) রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) নুরুন্নবী সরকারকে এবার বান্দরবান সদর উপজেলায় বদলির আদেশ দিয়েছে অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার বিকেলে দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের অফিস আদেশে এ তথ্য জানা গেছে। আগামী ১০ কার্যদিবসের মধ্যে তাকে বাঘাইছড়ি ছেড়ে বান্দরবানে যোগদানের আদেশ দেওয়া হয়।

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম বদলীর বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

এর আগে গত বছরের মার্চে গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ থেকে তাকে শাস্তিমূলক বদলি করা হয় বাঘাইছড়ি উপজেলায়। এরপর সেখানেও অনিয়ম- দুর্নীতি ও ঘুষ বাণিজ্যসহ আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেন (পিআইও) নুরুন্নবী। গত ২০ মার্চে তিন দিনের ছুটি নিয়ে বাঘাইছড়ি ছাড়েন তিনি। বর্তমানে এক মাসের বেশি সময় কর্মস্থলের বাইরে রংপুরে অবস্থান করছেন নুরুন্নবী। 

গেল বছরের ডিসেম্বর থেকে ওঠেন নুরুন্নবী সরকারের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি ও অসদাচরণসহ নানা বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে জড়িতের অভিযোগ ওঠে বাঘাইছড়িতে। তার দুর্নীতি নিয়ে বাঘাইছড়ি উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ইউপি সদস্যরা প্রকাশ্যে সোচ্চার হয়ে ওঠেন। উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভাতেও ইউপি সদস্য সমর বিজয় চাকমা হত্যাকাণ্ডে জড়িতসহ তার বিরুদ্ধে অনিয়ম- দুর্নীতি ও অসদাচরণসহ বিভিন্ন অভিযোগ করেন জনপ্রতিনিধিসহ প্রকল্প সংশ্লিষ্টরা। কিন্তু সুচতুর (পিআইও) নুরুন্নবী সরকার বাঘাইছড়ি থেকে বদলির তদবির শুরু করেন। দুর্নীতি ও ইউপি সদস্য সমর বিজয় হত্যায় দায় এড়াতে গত ১০ মার্চ রংপুর বিভাগের যে কোন উপজেলায় বদলি চেয়ে আবেদন করেন তিনি। 

এর আগে টানা ৫ বছর গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় দায়িত্বে থেকে ঘুষ-দুর্নীতি ও নানা অনিয়ম কর্মকাণ্ডসহ হামলা-মামলায় জড়িয়ে পড়েন পিআইও নুরুন্নবী সরকার। গেল ২৮ ফেব্রুয়ারি আর্থিক খাতে দুর্নীতিসহ অসদাচরণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় দুর্যোগ ও ত্রাণ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তর তাকে শাস্তি হিসাবে পদাবনতি (নিম্নতর বেতন গ্রেড) আদেশ দিয়েছে।

এদিকে, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে দেশজুড়ে দুর্নীতি বিরোধী অভিযানের সময় পিআইও নুরুন্নবী সরকারের ঘুষ, দুর্নীতি-লুটপাট ও কমিশন বাণিজ্যসহ নানা কর্মকাণ্ড নিয়ে একাধিক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রচার করে বিভিন্ন গণমাধ্যম। অভিযোগ তদন্ত করে এসবের প্রমাণও পায় স্থানীয় প্রশাসনসহ অধিদপ্তরের তদন্ত কমিটি। দুর্নীতি ফাঁসে ১২ গণমাধ্যমকর্মীর বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগে রংপুর আদালতে দুটি মামলা করেন (পিআইও) নুরুন্নবী সরকার।

বাঘাইছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুদর্শন চাকমা বলেন, (পিআইও) নুরুন্নবী সরকারের মত দুর্নীতিবাজ লোকদের  চাকরিতে না রাখাই ভালো, তাকে বদলি না করে সরাসরি বরখাস্ত করা উচিত ছিলো।

আলোকিত রাঙামাটি
আলোকিত রাঙামাটি