• রাঙামাটি

  •  রোববার, জুলাই ৩, ২০২২

রাঙ্গামাটি

রাষ্ট্রপতির আগমন উপলক্ষে বর্ণিল সাজে সেজেছে সাজেক ভ্যালি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ-

 আপডেট: ১৭:১৮, ১৯ মে ২০২২

রাষ্ট্রপতির আগমন উপলক্ষে বর্ণিল সাজে সেজেছে সাজেক ভ্যালি

​​​​​​​বর্ণিল সাজে রাতের সাজেক ভ্যালি। ফাইল ছবি


রাঙামাটির ছাঁদ খ্যাত সমুদ্র পৃষ্ঠ থেকে ১৮০০ ফুট উচ্চতায় অবস্থিত দেশের অন্যতম পর্যটন স্পট বাঘাইছড়ির সাজেক ভ্যালিতে দুই দিনের জন্য সফরে আসছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। আগামীকাল শুক্রবার (২০ মে) রাষ্ট্রপতির আগমন উপলক্ষে সাজেক পর্যটন এলাকাকে নবরুপে সাজিয়ে তুলে নিরাপত্তার চাদরে মোড়ানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, ‘এর আগে গত ১২ মে-২০২২ মহামান্য রাষ্ট্রপতির তিন দিনের জন্য সাজেক সফরে আসার কথা ছিলো। কিন্তু ঘূর্ণিঝড় ‌‌অশানির প্রভাবে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে সকল প্রস্তুতি শেষ করেও একেবারে শেষ সময়ে প্রোগ্রাম স্থগিত করা হয়। এতে সাজেকের স্থানীয় গ্রাম প্রধান হেডম্যান ও কারবারিসহ বসবাসকারী লুসাই সম্প্রদায়ের লোকজন খুবই হতাশ হয়েছিলেন।’

এ ব্যাপারে সাজেক রুইলুই পাড়ার হেডম্যান লালথাংগা লুসাই বলেন, ‘গতবার বৈরী আবহাওয়ার কারণে মহামান্য রাষ্ট্রপতির সাজেক সফর স্থগিত হওয়ায় আমরা খুবই হতাশ হয়েছিলাম। আমরা আশাবাদী ছিলাম আবহাওয়া ঠিক হয়ে গেলে মহামান্য রাষ্ট্রপতি আমাদের মাঝে আসবেন। সেই আশার বাস্তব প্রতিফলন ঘটেছে। ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতি আসার খবরে আমাদের মাঝে উৎসবমূখর পরিবেশ বিরাজ করছে। বহু প্রতিক্ষার পর মহামান্য রাষ্ট্রপতি আমাদের মাঝে আসছেন আমরা এতেই খুশি।’

বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শরিফুল ইসলাম জানান, রাষ্ট্রপতিকে বহনকারী হেলিকপ্টার আগামীকাল ২০ মে বিকেলে সাজেকে ল্যান্ড করবে। দুই দিন অবস্থানের পর ২২ মে বিকেলে সাজেক ছেড়ে যাবেন। 

এদিকে, ‘রাষ্ট্রপতির সফরকে ঘিরে প্রকৃতির সৌন্দয্যের আধার সাজেক ভ্যালিতে সাজ সাজ রব বিরাজ করছে। পাহাড়ি-বাঙালি বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অধির আগ্রহে অপেক্ষায় আছেন রাষ্ট্রের সার্বভৌমত্বের প্রতীক রাষ্ট্রপতিকে স্বাগত জানাতে।’

রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, ‘মহামান্য রাষ্ট্রপতির সাজেক সফরকে ঘিরে কোন রিসোর্ট, হোটেল-মোটেল বন্ধ থাকবেনা। মহামান্য রাষ্ট্রপতি সাজেক সফরকালে তার সফর সঙ্গীদের জন্য কিছু রিসোর্ট বুকিং রাখা হয়েছে। বাকি সব রিসোর্ট সাধারণ পর্যটকের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। তবে রাষ্ট্রপতির সফরের কারণে নিরাপত্তা ব্যবস্থা কড়াকড়ি থাকবে। এতে করে পর্যটকদের ভ্রমনে কিছুটা বাড়তি নিরাপত্তার বেষ্টুনিতে হয়তো পড়তে পারে।’

মন্তব্য করুন: