• রাঙামাটি

  •  শুক্রবার, আগস্ট ১৯, ২০২২

রাঙ্গামাটি

নতুন `সীমান্ত সড়ক` বদলে দেবে বাঘাইছড়ি উপজেলার জনজীবন

ওমর ফারুক সুমন (বাঘাইছড়ি) প্রতিনিধিঃ-

 প্রকাশিত: ১৯:৪৪, ২ আগস্ট ২০২২

নতুন `সীমান্ত সড়ক` বদলে দেবে বাঘাইছড়ি উপজেলার জনজীবন
১৫ কিলোমিটার নতুন সীমান্ত সড়ক পরিদর্শন করছেন ২০ ইনঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল রিয়াসত। ছবি:- আলোকিত রাঙ্গামাটি

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পাহাড়ের প্রত্যন্ত অঞ্চলে উন্নয়নের জোয়ার পৌছে দেয়ার পরিকল্পনার একটি বড় অংশ হিসেবে রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার আর্যপুর থেকে সিমান্তবর্তী মাঝিপাড়া পর্যন্ত ১৫ কিলোমিটার নতুন সীমান্ত সড়ক তৈরি করছে সেনাবাহিনীর ৩৪ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্রিগেড।

মঙ্গলবার (২ আগস্ট) সকাল ১১টায় সেনাবাহিনীর ২০ ইনঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল রিয়াসত সড়ক নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন করেন। এ সময় বাঘাইছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুমানা আক্তার, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল কাইয়ুম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাগরিকা চাকমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গিয়াসউদ্দিন মামুনসহ স্থানীয় পাহাড়ী ও বাঙ্গালী গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ এই সীমান্ত সড়কটির কাজ সম্পূর্ণ হলে কচুছড়ি, নবছড়া, হালিমপুর, মাঝি পাড়াসহ ৮ থেকে ১০টি এলাকা উপজেলার মূল ভুখন্ডের সাথে যুক্ত হবে। এসব এলাকার উৎপাদিত কৃষি পন্য অল্প সময়ের মধ্যে বাজার জাত করতে পারবে। শিক্ষা ও চিকিৎসা খাতেরও ব্যাপক উন্নতি হবে।


আর্যপুর এলাকার কারবারি বিরশিং চাকমা বলেন, “এই সড়কটি আমাদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন, সড়কটির কাজ শেষ হলে আমরা আম, আনারস, আদা হলুদ বাজারজাত করতে পারবো। ফলে এই এলাকার অর্থনৈতিক রুপ পাল্টে যাবে।”

সেনাবাহিনীর ২০ ইঞ্জিনিয়ার কনস্ট্রাকশন ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল রিয়াসত বলেন,  “সড়কটি আর্যপুর হয়ে কচুছড়ি পর্যন্ত যাবে সেখানে একটি ব্রীজ নির্মান  করা হবে। কচুছড়ি থেকে সড়কটি মাঝি পাড়া হয়ে ভবিষ্যতে হালিমপুর, উদয়পুর সাজেকের সাথে সংযুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে। বর্তমানে এই অঞ্চলে উৎপাদিত ফসল আম কাঠাল, আদা হলুদ পচে নষ্ট হয়ে যায় কারণ সড়ক পথ নেই। এই সড়কটি সম্পূর্ণ হলে স্থানীয়দের উৎপাদিত ফসল সরাসরি উপজেলা সদরে এনে বিক্রি করা যাবে। ফলে স্থানীয়দের আর্থসামাজিক অবস্থার ব্যাপক পরিবর্তন হবে।”
 

মন্তব্য করুন: