• রাঙামাটি

  •  মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২

নগর জুড়ে

পাহাড়ে রক্তপাত, হানাহানি ও চাঁদাবাজি বন্ধে যা কিছু করা প্রয়োজন সরকার সব কিছুই করবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

রাঙামাটি (সদর) প্রতিনিধিঃ-

 আপডেট: ১৭:৩৭, ২৬ মে ২০২২

পাহাড়ে রক্তপাত, হানাহানি ও চাঁদাবাজি বন্ধে যা কিছু করা প্রয়োজন সরকার সব কিছুই করবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ছবি:- আলোকিত রাঙ্গামাটি


পাহাড়ে রক্তপাত, হানাহানি ও চাঁদাবাজি বন্ধে যা কিছু করা প্রয়োজন সরকার তার সব কিছুই করবেন বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) দুপুরে রাঙামাটি সুখী নীলগঞ্জে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নস্ পার্বত্য আঞ্চলিক দপ্তর ও তিন পার্বত্য জেলায় তিনটি আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন কার্যালয়ের ভিত্তি প্রস্তুর স্থাপন উপলক্ষে আয়োজিত সুধী সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পার্বত্য চুক্তির আলোকে পাহাড়ে শান্তি ও আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় আর্মড পুলিশের এ কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা পাহাড়ের যেসব ক্যাম্প থেকে সেনাবাহিনী প্রত্যাহার করা হয়েছিল সেসব ক্যাম্পের দায়িত্ব গ্রহণ করবে।

এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাঙামাটিতে ডিআইজি আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের আঞ্চলিক দপ্তর ও তিন পার্বত্য জেলায় তিনটি আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন কার্যালয়ের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোঃ আখতার হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি, খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি, খাগড়াছড়ি জেলার সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, সংরক্ষিত আসনের মহিলা সংসদ সদস্য বাসন্তি চাকমা, মন্ত্রী পরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম, বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজির আহমেদ, র‌্যাবের মহাপরিচালক আব্দুল্লাহ মামুন, চট্টগ্রামের জিওসি, এপিবিএনের আইজিপি হাসানুল হায়দার, ডিজিএফআই প্রধান মেজর জেনারেল আহমেদ তাবরেজ শামস চৌধুরী, তিন পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানগণ, তিন পার্বত্য জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারগণসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন: