• রাঙামাটি

  •  সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

জাতীয়

পাহাড়ে পর্যটন বিকাশের সম্ভাবনা অফুরান: আইজিপি

নিউজ ডেস্কঃ-

 প্রকাশিত: ১০:২১, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

পাহাড়ে পর্যটন বিকাশের সম্ভাবনা অফুরান: আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, পাহাড়ে পর্যটন শিল্প বিকাশের অফুরান সম্ভাবনা রয়েছে। পাহাড় ও প্রকৃতির অপার সৌন্দর্য্যকে কাজে লাগিয়ে বান্দরবানের অর্থনৈতিক উন্নতি ঘটানো সহজ।

রোববার দুপুরে বান্দরবানের থানচি উপজেলায় পুলিশের উদ্যোগে হাইল‍্যান্ডার্স পার্ক অ্যান্ড রিসোর্ট উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন তিনি।

আইজিপি বলেন, পর্যটকদের নিরাপত্তা বাড়াতে সব ধরনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দৃষ্টিনন্দন করতে প্রয়োজনে ট‍্যুরিস্ট পুলিশের ইউনিফর্মে পরিবর্তন আসবে। মানুষের নিরাপত্তায় এখানে আমর্ড পুলিশের তিনটি ব্যাটালিয়ন ও পুলিশের একাধিক ক্যাম্প স্থাপন করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করছে। পাশাপাশি আমরা পুলিশ বাহিনীর সদস্যদের কল্যাণ এবং জনগণের কল্যাণেও বিভিন্ন ধরনের উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছি। পর্যটকদের সুযোগ-সুবিধার কথা বিবেচনা করে থানচিতে এ রিসোর্ট নির্মাণ করা হয়েছে। রিসোর্টটি দেশের পর্যটন শিল্পের বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১৭০০ ফুট উচ্চতায় মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশে গড়ে তোলা হয়েছে হাইল‍্যান্ডার্স পার্ক অ্যান্ড রিসোর্ট


এ সময় উপস্থিত ছিলেন- চট্টগ্রামের ডিআইজি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন ভূঁইয়া, পুলিশ হেডকোয়ার্টারের ডিআইজি (ফাইন্যান্স) মো. মাহবুবুর রহমান, ডিআইজি মোহাম্মদ রুহুল আমিন, বান্দরবানের পুলিশ সুপার মো. তারিকুল ইসলাম, রাঙ্গামাটির পুলিশ সুপার মীর আবু তৌহিদ, খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মোহাম্মদ নাইমুল হক প্রমুখ।

সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১৭০০ ফুট উচ্চতায় থানচির মনোরম প্রাকৃতিক পরিবেশে বাংলাদেশ পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্টের অর্থায়নে গড়ে তোলা হয়েছে হাইল‍্যান্ডার্স পার্ক অ্যান্ড রিসোর্ট। এতে রয়েছে ভিআইপি কটেজ, হানিমুন কটেজ, এক্সিকিউটিভ কটেজ ও ডরমেটরি। নানা স্বাদের পাহাড়ি খাবারসহ অন্যান্য খাবারেরও ব্যবস্থা রয়েছে।

পাহাড়ি সংস্কৃতির সঙ্গে মিল রেখে এখানে নির্মাণ করা হয়েছে একটি জাদুঘর। রিসোর্টটির আরেকটি আকর্ষণীয় দিক হলো থানচি থেকে সাঙ্গু নদী হয়ে রেমাক্রি ও আফিয়াখুম পর্যন্ত নৌবিহার।

মন্তব্য করুন: