• রাঙামাটি

  •  বৃহস্পতিবার, মে ২৬, ২০২২

সারাদেশ

প্রাথমিক শিক্ষা সব শিক্ষার ভিত্তি

 প্রকাশিত: ১০:৩০, ৩০ জুন ২০১৯

প্রাথমিক শিক্ষা সব শিক্ষার ভিত্তি

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব আকরাম-আল-হোসেন বলেছেন, প্রাথমিক শিক্ষা হচ্ছে সব শিক্ষার ভিত্তি। এই ভিত্তিকে মজবুত করতে পারলেই ২০৪১ সালের উন্নত, সমৃদ্ধ ও মেধাসম্পন্ন জাতি গঠন সম্ভব হবে।

শনিবার বিকেলে খুলনা প্রাইমারি টিচার্স ট্রেনিং ইনস্টিটিউটে শিক্ষার্থীদের গাণিতিক দক্ষতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত অবহিতকরণ কর্মশালায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতিসংঘ ও বিশ্বব্যাংকের এক গবেষণায় দেখা গেছে মাত্র ৩৩ শতাংশ শিক্ষার্থী গণিতে ভালো। অন্যদিকে সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার (এসডিজি) চার নম্বর লক্ষ্য হচ্ছে অন্তর্ভূক্তিমূলক ও মানসম্মত শিক্ষা। সুতরাং এসডিজির এই লক্ষ্য পূরণে শ্রেণিকক্ষের সব শিক্ষার্থীদের একই মানে নিয়ে আসতে হবে।

তিনি আরো বলেন, গত ১০ বছরে বাংলাদেশের যে দৃশ্যমান পরিবর্তন এসেছে, শিক্ষার ক্ষেত্রেও সেরকম পরিবর্তন আনতে হবে। পাঠদান পদ্ধতিতে পরিবর্তনের মাধ্যমে শিক্ষাকে শিক্ষার্থীদের কাছে আকর্ষণীয় করে তুলতে হবে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. এএফ এম মঞ্জুরের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষার বিভাগীয় উপ-পরিচালক মেহেরুন্নেসা, এডিসি (শিক্ষা ও আইসিটি) গোলাম মাঈনউদ্দীন হাসান, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এসএম সিরাজুদ্দোহা ও পিটিআই সুপারইন্ডেন্ট স্বপন কুমার বিশ্বাস।

‘গণিত অলিম্পিয়াড কৌশল প্রয়োগের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের গাণিতিক দক্ষতা বৃদ্ধি’র সম্ভাব্যতা যাচাই শীর্ষক একটি প্রকল্প নিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

কর্মশালায় ১৭টি জেলার ১৭টি উপজেলার ৮০টি স্কুলকে পরীক্ষামূলকভাবে এই প্রকল্পের আওতায় নেয়া হয়েছে ও গণিত অলিম্পিয়াড পদ্ধতি প্রয়োগের মাধ্যমে পাঠদান বিষয়ে ২৪০ জন শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে।

আলোকিত রাঙামাটি

মন্তব্য করুন: