• রাঙামাটি

  •  মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৬, ২০২২

স্বাস্থ্য

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে প্রতিদিন পাতে রাখুন আলু

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্কঃ-

 প্রকাশিত: ১০:৩৫, ২০ নভেম্বর ২০২২

ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে প্রতিদিন পাতে রাখুন আলু

মাছ, মাংস কিংবা শুক্তো- বাঙালি রান্না আলু ছাড়া যেন অচল। আলু অনেকেরই প্রিয় সবজি। রান্নায় আলু না দিলে অনেকেরই মুখভার হয়। অনেকে বিরিয়ানি খান শুধু নরম, ধোঁয়া ওঠা ধামসা আলুর জন্যেই। তবে ডায়াবেটিসের সমস্যা থাকলে আলু এড়িয়ে চলাই ভালো।

এছাড়া আলু এমনিতে বেশ উপকারী। স্বাদের খেয়াল রাখার পাশাপাশি শরীরের যত্ন নিতেও সমান পারদর্শী এই সবজি। আলুতে রয়েছে ভরপুর পটাশিয়াম। কিন্তু সোডিয়ামের পরিমাণ অত্যন্ত কম। উচ্চ রক্তচাপ এবং হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে সোডিয়াম। তাই হৃদ্‌যন্ত্র ভালো রাখতে ভরসা রাখতে পারেন আলুর উপরে।

আলুর মধ্যে থাকা ফোলেট ক্যান্সার প্রতিরোধে সাহায্য করে। ভিটামিন সি ও অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট-সমৃদ্ধ আলু মলাশয়ের ক্যান্সার রোধে কার্যকরী। এছাড়াও আলুর মধ্যে থাকা ফাইবার হজম ক্ষমতা উন্নত করতে সহায়তা করে। ডায়েটারি ফাইবার হজমশক্তি বাড়ানোর পাশাপাশি ওজন নিয়ন্ত্রণেও সমান ভূমিকা পালন করে। 

অনেকেরই হয় তো অজানা, আলু কিন্তু হার্ট ভালো রাখতে দারুণ সদর্থক ভূমিকা পালন করে। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, হৃদ্‌রোগ থাকলে রোজকার পাতে রাখতে পারেন আলু। আলুতে কোলেস্টেরল বা স্যাচুরেটেড ফ্যাটের পরিমাণ একেবারে কম। নেই বললেই চলে। হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা বাড়াতে এই দুইটি উপাদানই অগ্রণী ভূমিকা পালন করে। হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি কমাতে রোজের পাতে রাখতেই পারেন আলু। সুফল পাবেন।

আলুতে রয়েছে ভরপুর পটাশিয়াম। কিন্তু সোডিয়ামের পরিমাণ অত্যন্ত কম। উচ্চ রক্তচাপ এবং হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়িয়ে তোলে সোডিয়াম। তাই হৃদ্‌যন্ত্র ভালো রাখতে ভরসা রাখতে পারেন আলুর উপর। ফাইবার-সমৃদ্ধ আলু রক্তে গ্লুকোজের ভারসাম্য বজায় রাখে। ফলে অল্প পরিমাণে খেলেও আলু দীর্ঘ ক্ষণ পেট ভর্তি রাখতে সাহায্য করে। ফাইবার যত্ন নেয় হৃদ্‌যন্ত্রেরও। আবার ওজন নিয়ন্ত্রণেও কিন্তু আলুর ভূমিকা একেবারে ফেলে দেওয়ার মতো নয়।

মন্তব্য করুন: