• ২৭ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৪ ১৪২৮

  • || ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

রাঙ্গামাটি

আনারসের স্বর্গভূমি নানিয়ারচরে এবছর প্রায় ১৫ শ’ হেক্টর জমিতে চাষ

 প্রকাশিত: ১৫:০৩, ১৫ নভেম্বর ২০২১

আনারসের স্বর্গভূমি নানিয়ারচরে এবছর প্রায় ১৫ শ’ হেক্টর জমিতে চাষ

মেহেরাজ হোসেন সুজন, নানিয়ারচরঃ- বাংলাদেশের ভূখণ্ডে বিভিন্ন অঞ্চল কে আনারসের রাজধানী আখ্যা দিলেও পার্বত্য জেলা রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলা তার মধ্যে অন্যতম। এই ফলন চাষ ও পাহাড়ে জুম চাষসহ ফলনকৃত আনারস দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিক্রি হয়।

রাঙামাটি সদর হতে সড়ক পথে নানিয়ারচর আসার পথে আনারসে বৃস্তৃত এই পাহাড়গুলো দেখে চোখ জুড়িয়ে যায় যে কারো। পাহাড়ের এই মনোরম দৃশ্য দেখে ফুটে উঠে পাহাড়ের নিদারুণ সৌন্দর্য।

বছরের (অক্টোবর-ডিসেম্বর) মাস পর্যন্ত চারা লাগানোর কাজ শেষে পরিচর্যা শুরু করে চাষিরা। (এপ্রিল-জুলাই) পর্যন্ত আনারসের ফলন পরিপূর্ণতা পায়।

নানিয়ারচর উপজেলা আনারস ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি ও ইউপি সদস্য নুরুল ইসলাম জানান, আনারষ চাষের শুরু হতেই ব্যাপক লাভজনক হয়ে উঠেছে এ উপজেলায়। তবে করোনাকালে অনেক ক্ষতিসাধন হতে হয়েছে ব্যবসায়ীদের। আর নানিয়ারচর উপজেলার ফলনকৃত আনারসের স্বাদটাও অনেক বেশি বলে এর চাহিদা বেশি।

নানিয়ারচর উপজেলা কৃষি অফিসার টিপু সুলতান জানান, উপজেলায় গত বছর প্রায় ১১ শ’ হেক্টর জমিতে চাষ হয় এই আনারসের। যা বর্তমানে এ বছরে প্রায় ১৫ শ’ হেক্টরের কাছাকাছি চাষ হতে যাচ্ছে এবং ব্যবসায়ীরা প্রতি বছর আনারস জেলা-উপজেলার চাহিদা মিটিয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্রি করে থাকে।

নানিয়ারচর উপজেলা হর্টিকালচার সেন্টার কর্মকর্তা আল-মামুন জানায়, নানিয়ারচরে আনারস চাষে সাফল্যর মুখ দেখছে চাষী ও ব্যবসায়ীরা। হটিকালচার সেন্টারের উদ্যোগে আনারসের চিপস তৈরির একটি কারখানার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। সহসা তার কার্যক্রম শুরু হবে, এতে স্থানীয়দের কর্ম সংস্থানের ব্যবস্থা হবে।

নানিয়ারচর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিউলি রহমান তিন্নি জানায়, নানিয়ারচরে বিভিন্ন মৌসুমি ফল চাষের পাশাপাশি আনারস অন্যতম। উপজেলায় এর প্রামাণ্য তুলে ধরতে একটি আনারসের প্রতিকৃতিও করা হচ্ছে অতি শিগগিরই।

নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান প্রগতি চাকমা জানান, নানিয়ারচর উপজেলাকে আনারসের রাজধানীও বলা হয়ে থাকে। নানিয়ারচরের পাহাড়ি-বাঙালি সকলেই এই আনারসের চাষ করে সাবলম্বী হচ্ছেন। নানিয়ারচর উপজেলায় সদ্য নির্মাণকৃত সেতু নির্মাণের কাজ সম্পন্ন হওয়ায় আনারস ব্যবসায়ীদের বাণিজ্যিক লাভজনক আয় বাড়বে।

আলোকিত রাঙামাটি

মন্তব্য করুন: