• রাঙামাটি

  •  রোববার, জুলাই ৩, ২০২২

রাঙ্গামাটি

কাপ্তাইয়ে সংগীত সন্ধ্যা “সুরের জলসায়” মাতালেন শিল্পী রফিক ও তানি

কাপ্তাই প্রতিনিধিঃ-

 প্রকাশিত: ১১:০৯, ১৯ মে ২০২২

কাপ্তাইয়ে সংগীত সন্ধ্যা “সুরের জলসায়” মাতালেন শিল্পী রফিক ও তানি

আকাশে মেঘের ঘনঘটা, কিন্তু ছিল না বৃষ্টি। এমনি সময়ে গত বুধবার (১৮ মে) সন্ধ্যা ৭টায় কাপ্তাই উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জড়ো হয়েছিল প্রায় ৩ শতাধিক দর্শক।

কাপ্তাই উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির আয়োজনে বেতার ও টিভি শিল্পী মোঃ রফিক ও রওশন শরীফ তানির দ্বৈত সংগীত সন্ধ্যা “সুরের জলসা”।

বাচিক শিল্পী ও বাংলাদেশ বেতার রাঙামাটি কেন্দ্রের সিনিয়র উপস্থাপক শিখা ত্রিপুরার প্রানবন্ত উপস্থাপনায় শিল্পিদ্বয় একক ও দ্বৈত মিলে সর্বমোট সত্তর ও আশির দশকের জনপ্রিয় ১২টি হারানো দিনের গান পরিবেশন করে দর্শকদের মাতোয়ারা করেন। এছাড়া সেদিনের “সুরের জলসা” সংগীত সন্ধ্যায় শিল্পীরা একটি করে দেশের গান, রবীন্দ্র সংগীত ও নজরুল সংগীত পরিবেশন করে দর্শকদের প্রশংসায় ভাসেন। বিশেষ করে মোঃ রফিকের কন্ঠে “কি আশায় বাঁধি খেলাঘর”,  “আমার দুটি চোখ পাথরতো নয়”, “আমার গাঁয়ে যত দুঃখ” এবং তানির কন্ঠে “এই শুধু গানের দিন, এই লগনে গান শুনাবার”, “যেই ছিল দৃষ্টির সীমানা” ও “আমি মেলা থেকে, তালপাতার এক বাঁশি কিনেছি” গানগুলো পরিবেশনায় মিলনায়তন ভর্তি দর্শক উপভোগ করেন তুমুল করতালিতে।

এছাড়া যুগল কন্ঠে “এই সুন্দর স্বর্নালী সন্ধ্যা” গানটি পরিবেশনা যেনো সকলকে ফিরিয়ে নিয়ে যায় বাংলা সংগীতের সেই সোনালী অতীতে।

রাত ৯টায় অনুষ্ঠান শেষে কাপ্তাই উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির পক্ষ থেকে শিল্পীদ্বয় এবং উপস্থাপককে সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয়।

এ সময় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, রাঙামাটি জেলা পরিষদ সদস্য অংসুই ছাইন চৌধুরী।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও শিল্পকলা একাডেমির সভাপতি মুনতাসির জাহান এতে সভাপতিত্ব করেন।

এ সময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মফিজুল হক, কেপিএম লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী সুদীপ মজুমদার, চন্দ্রঘোনা খ্রীস্টিয়ান হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ প্রবীর খিয়াং।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন “সুরের জলসা” সংগীত সন্ধ্যার আহবায়ক ও উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মংসুইপ্রু মারমা।

উপজেলা শিল্পকলা একাডেমির সাধারণ সম্পাদক ঝুলন দত্তের সংগীত পরিচালনায় “সুরের জলসা” দ্বৈত সংগীত সন্ধ্যায় যন্ত্র সংগীতে সহায়তা করেন, রুমন শীল, অভিজিৎ দাশ কিষান, সাখাওয়াত শরীফ তানভীর, সুজন দাশ ও ঝুলন দত্ত। শব্দ নিয়ন্ত্রণ ও আলোক প্রক্ষেপণে মোহাম্মদ বোরকান।

মন্তব্য করুন: