• রাঙামাটি

  •  মঙ্গলবার, জুলাই ৫, ২০২২

রাঙ্গামাটি

রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে

সরকার শান্তিচুক্তির সব শর্তই বাস্তবায়ন করবে: ওবায়দুল কাদের

রাঙামাটি (সদর) প্রতিনিধিঃ-

 প্রকাশিত: ১৬:২৪, ২৪ মে ২০২২

সরকার শান্তিচুক্তির সব শর্তই বাস্তবায়ন করবে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে ‘গণক’ সম্বোধন করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, সরকার কখন থাকবে, কতদিন থাকতে পারবে সেই গণনা তিনি করছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, জনগণকে খুশি রাখতে পারলে নির্বাচনে আবারো জনগণ আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনবে। আমরা দেখেছি, বিএনপির মেয়াদ যখন শেষ হয়েছিল, তখন তাদেরকে জনগণ টেনে-হিঁচড়ে নামিয়েছে। জুনেই পদ্মা সেতু উদ্বোধন হবে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতু হওয়াতে সারা দেশের মানুষ খুশি হলেও ফখরুল ও বিএনপি মুখে শ্রাবণের কালো মেঘ। তাদের অন্তরে খুবই বিষজ্বালা। তারা অন্ধকারে ঢিল ছুঁড়ে সাধারণ মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। যা কখনো সফল হবে না।

মঙ্গলবার (২৪ মে) সকালে রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, ভূমি সমস্যা ছাড়া পাহাড়ের সব সমস্যারই সমাধান হয়েছে। ভূমি সমস্যা সমাধান হলে সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে। অশান্ত পার্বত্য চট্টগ্রামকে শান্ত করতে আওয়ামী লীগ শান্তি চুক্তি করেছিল, আর চুক্তির সব শব্দই বাস্তবায়ন হবে। এক্ষেত্রে হতাশ হওয়ার কোন কারণ নেই। পাহাড়ে এখনো মাঝে মাঝে রক্তপাত দেখতে পাই, এসব বন্ধ করতে হবে। রক্তপাত ঘটিয়ে কোনো সমস্যার সমাধান সম্ভব হবে না।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার এমপি’র সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বরের সঞ্চালনায় এতে বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদক ওয়াসিকা আয়েশা খান এমপি, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য বাসন্তী চাকমা। 

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, এখন যত কথাই বলুক, আগামী সংসদ নির্বাচনে বিএনপি-জামায়াত নির্বাচনে অংশ নেবে। সরকার প্রধান শেখ হাসিনা থাকবে আর স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম হানিফ এমপি বলেন, ‍‍‘জামায়াত-বিএনপি পাকিস্তানের মদদে পরিচালিত বিধায় বাংলাদেশের অর্জন-অগ্রগতি তাদের পছন্দ হয় না। তারা শেখ হাসিনাকে দু’চোখে দেখতে পারে না।’

তিনি আরো বলেন, ইদানিং দেখা যাচ্ছে বিএনপির নেতাকর্মীরা বেফাঁস ও লাগামহীন কথাবার্তা বলছে। আপনাদের হুঁশিয়ার দিয়ে বলতে চাই, এভাবে কথা বলতে থাকলে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আপনাদেরকে মাঠেই প্রতিহত করবে।


এর আগে সকালে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে সম্মেলনের প্রথম অধিবেশন শুরু হয়। বিকালের দ্বিতীয় অধিবেশনে জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হবে।

মন্তব্য করুন: