• রাঙামাটি

  •  রোববার, জুলাই ৩, ২০২২

রাঙ্গামাটি

বখাটের অপমান সইতে না পেরে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

 প্রকাশিত: ১৭:২২, ৪ নভেম্বর ২০১৯

বখাটের অপমান সইতে না পেরে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

নিহত কলেজ ছাত্রী শামিমা


রাঙামাটি জেলার রাজস্থলীর বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের শফিপুর এলাকায় অপমান সইতে না পেরে কলেজ ছাত্রী বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

রবিবার (৩ নভেম্বর) সন্ধা সাড়ে ৬ টায় বিষপান করেছে শামিমা (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্রী। সে বাঙ্গালহালিয়া সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীর মানবিক বিভাগের মেধাবী ছাত্রী ছিলেন।

জানা যায়, সম্প্রতি তারই আপন ফুফাতো ভাইয়ের সাথে পারিবারিক ভাবে তার বিবাহের কথা বার্তা সম্পন্ন হয়েছে। কিন্তু পার্শ্ববর্তী মোঃ রানা তাকে বিভিন্ন সময়ে উত্যক্ত করতেন। তাই বিয়ের কথাবার্তা সম্পন্ন হওয়ার পরেও রানা মেয়েটির পিছু ছাড়েনি এবং তার ফুফাতো ভাইকে রানা বিভিন্ন মিথ্যা তথ্য প্রদানের ফলে অপমান সইতে না পেরে মৃত্যুর পথ বেঁচে নেয় কলেজ ছাত্রী শামিমা। বাইক চালক মোঃ রানা (২৫) পিতাঃ মোঃ শহীদ, তিনি বাঙ্গালহালিয়া ইউনিয়নের ডাকবাংলা পাড়ার বাসিন্দা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রানা অত্র এলাকার খুবই বখাটে ছেলে। তিনি এর আগেও একাধিক মেয়েদের সর্বনাশ করেছে। যার ফলে কয়েকমাস পূর্বে ছয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা মেয়েকে সামাজিক চাপে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে ঘরে তুলতে বাধ্য হয়। তারপরেও প্রতিনিয়ত রানা তার অবৈধ কার্যকলাপ চালিতে যায়। ফলে এর খারাপ দৃষ্টিকোণ থেকে রেহাই পায়নি কলেজ পড়ুয়া নিহত ছাত্রী শামিমা আকতার।

এ ব্যাপারে কলেজ ছাত্রীর বাবা বলেন, আমার মেয়ের মৃত্যুর পিছনে একমাত্র রানা দায়ী, প্রশাসন ও সরকারের নিকট তার মেয়ের হত্যার বিচারের জোড় দাবি জানান।

চন্দ্রঘোনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসরাফ উদ্দিন কলেজ ছাত্রী শামিমার মৃত্যুর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন এবং পরিবার থেকে কোন মামলা দায়ের করলে প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় আনা হবে বলে তিনি আশ্বাস প্রদান করেন।

 

 

এদিকে, বাঙ্গালহালিয়া কলেজের তারই সহপাঠী, শিক্ষক শিক্ষিকা, অভিবাবক সকলে বাঙ্গালহালিয়া বাজারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেন। এ সময় বক্তারা দোষীদের শাস্তির জোর দাবি জানান।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত রানার সাথে মুঠোফোনে কয়েকবার আলাপ করার চেস্টা করলে গতকাল রাত ৮টা হতে নাম্বার টি বন্ধ পাওয়া যায়।

আলোকিত রাঙামাটি

মন্তব্য করুন: